শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১১:৫২ অপরাহ্ন

আগামীকাল আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’

ছবি: সংগৃহীত

খবরের আলো রিপোটঃ

 

 

শুক্রবার, ০৮ নভেম্বর : বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আগামীকাল (৯ নভেম্বর) শনিবার বা আগামী ১০ নভেম্বর রবিবারের মধ্যে যেকোনো সময় বাংলাদেশ উপকূলে আঘাত হানতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আজ (৮ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনকে বলেন, “বাংলাদেশের উপকূল থেকে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এখনো প্রায় ৭০০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে। ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশ এবং ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দিকে ধেয়ে আসছে। এটি হয়তো আগামীকাল শনিবার বা পরশু রবিবার যেকোনো সময় বাংলাদেশ উপকূলে আঘাত হানতে পারে। তবে সময়টি এখনো নির্দিষ্ট করে বলা যাচ্ছে না।”

“আমরা ঘূর্ণিঝড়টির গতি-প্রকৃতি অবজারভেশনে রেখেছি। যেহেতু এটি এখনো উপকূল থেকে অনেক দূরে তাই পরবর্তীতে আমরা আরও সুনির্দিষ্ট করে বলতে পারবো। ঘূর্ণিঝড়টির আঘাতের সময় এখনও নির্দিষ্ট করে বলা যাচ্ছে না,” যোগ করেন তিনি।

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৪ (চার) নম্বর স্থানীয় হুশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন আব্দুর রহমান।

এদিকে, বার্তা সংস্থা ইউএনবি জানায়, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আরও শক্তি সঞ্চয় করে প্রবল আকার ধারণ করছে। এর প্রভাবে সাগর উত্তাল হয়ে উঠেছে।

আজ (৮ নভেম্বর) আবহাওয়ার এক সতর্কবার্তায় বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত নৌযানগুলোকে সাগরে চলাচল না করে দ্রুত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

এক বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, আজ ভোর ৬টায় পশ্চিম-মধ্য ও সংলগ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর অতিক্রম করে তীব্র ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ উত্তর-উত্তরপশ্চিম উপকূলের দিকে অগ্রসর হয়। এটি চট্টগ্রাম বন্দর থেকে প্রায় ৭৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার থেকে ৭১০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৬৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৬৫০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিলো। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের কাছে সাগর বিক্ষুব্ধ রয়েছে।

এটি আরও তীব্র হয়ে উত্তর ও উত্তর-পশ্চিম দিকের দিকে অগ্রসর হতে পারে। তীব্র ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’র কারণে সমুদ্রবন্দর, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলগুলো প্রভাবিত হতে পারে। রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে বৃষ্টি হতে পারে, আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকতে পারে।

উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। সেই সঙ্গে তাদের গভীর সাগরে চলাচল না করতে বলা হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com