বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৭:৫৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বে আলোচনায় জয়-পুতুল কলাপাড়ায় মাদ্রাসা অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ঘুষ, দুর্নীতি ও নিয়োগ বাণিজ্যের বিস্তর অভিযোগ পটুয়াখালীর র‌্যাব কর্তৃক ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার পটুয়াখালীতে ৪১তম জাতীয় রিক্সা-ভ্যান শ্রমিক লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত পটুয়াখালীতে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আলতাফ হোসেন চৌধুরীর সংবাদ সম্মেলন প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর টঙ্গীতে চাঞ্ছল্যকর দুই সহোদর কিশোরীর ধর্ষণকারী গ্রেফতার ভোলায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ৩৪ হাজার ৫শ’ পিস কম্বল বরাদ্দ নেত্রকোনার পৌর এলাকা সাতপাই-মঈনপুর বাঁশের সাঁকোতে সীমাহীন জনদুর্ভোগ রামপালে অগ্নিকান্ডে একটি বাড়ী ভস্মিভূত,আনুমানিক ১০লক্ষ টাকার ক্ষতি

২৬ ডিসেম্বর বিরল সূর্যগ্রহণ দেখবে বিশ্ব

খবরের আলো ডেস্ক :

 

 

১৭২ বছর পর এক বিরল সূর্যগ্রহণ দেখবে বিশ্ব। আগামী ২৬ ডিসেম্বর এই সূর্যগ্রহণ সংঘটিত হবে। এ সময় সূর্যের চারপাশে থাকবে আগুনের বলয়। বিজ্ঞানীরা যাকে বলেন ‘রিং অব ফায়ার’।

মহাকাশ বিজ্ঞানীরা জানান, আড়াই ঘণ্টা ধরে চলবে এই মহাজাগতিক দৃশ্য। সূর্যের ৯০ শতাংশের বেশি ঢেকে ফেলবে চাঁদ, যা খালি চোখেই অবলোকন করতে পারবেন পৃথিবীবাসী। ইউরোপ, এশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, পূর্ব আফ্রিকার দেশগুলো থেকে দেখা যাবে এই সূর্যগ্রহণ। তবে এই দৃশ্যটি সবচেয়ে ভালো দেখা যাবে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে।

২০১৯ সালের শেষ সূর্যগ্রহণ হবে এটি। এ বছরের ৬ জানুয়ারি ও ২ জুলাই অন্য দুটি সূর্যগ্রহণ হয়েছিল। সেগুলো উপমহাদেশীয় অঞ্চলের মানুষের দৃষ্টিগোচর হয়নি।

ব্যাবিলনীয় সভ্যতা থেকে পরিচিতি পায় সূর্যগ্রহণ। চাঁদ যখন পরিভ্রমণরত অবস্থায় কিছু সময়ের জন্য পৃথিবী ও সূর্যের মাঝখানে এসে পড়ে, তখন পৃথিবীর কোন দর্শকের কাছে কিছু সময়ের জন্য সূর্য আংশিক বা সম্পূর্ণরূপে অদৃশ্য হয়ে যায়।

এই ঘটনাকে সূর্যগ্রহণ বলা হয়। তবে আমাবশ্যার পরে নতুন চাঁদ উঠার সময় এ ঘটনা বেশি ঘটে। পৃথিবীতে প্রতিবছর অন্তত দুই থেকে পাচঁটি সূর্যগ্রহণ পরিলক্ষিত হয়। এর মধ্যে দুইটি সূর্যগ্রহণ পূর্ণ সূর্যগ্রহণে রূপ নেয়।

পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণে হঠাৎ দিনের বেলা রাতের অন্ধকার নেমে আসে এবং চারপাশের প্রাকৃতিক পরিবেশে হঠাৎ একটা পরিবর্তন আসে। পাখিরা সন্ধ্যার আভাস পেয়ে ফিরে যেতে থাকে বনে, বাতাস স্থির হয়ে যায় এবং হঠাৎ তাপমাত্রা কমতে থাকে।

বৈজ্ঞানিকরা বলছেন, চন্দ্রগ্রহণের চেয়ে সূর্যগ্রহণ বেশিবার হয়। প্রতি সাতটি গ্রহণের মধ্যে সূর্যগ্রহণ ও চন্দ্রগ্রহণের অনুপাত ৫:২ বা ৪:৩। তবে অধিকাংশ সূর্যগ্রহণ সমুদ্রপৃষ্ঠে বা পর্বতমালার ওপর দিয়ে গেলে নজড়ে পড়ে না।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com