সোমবার, ২০ জানুয়ারী ২০২০, ০১:২৮ পূর্বাহ্ন

ফায়দা লুটছে ফার্মেসি মালিকরা, ইয়াবার নেশা লোপেন্টায়

খবরের আলো :
মো:আমিন হোসাইন : রাজধানীর মিরপুর শাহ্ আলী থানাধিন এলাকার গুদারাঘাটে  ইয়াবা ও ফেন্সিডিল দুষ্প্রাপ্য হওয়ায় মাদক সেবীরা আসক্ত হচ্ছে বিকল্প নেশায়। কিশোর ও যুবকরা এসব নেশার দিকে বেশি ঝুঁকছে। তারা ইয়াবার বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করছে লোপেন্টা ট্যাবলেট। ফেন্সিডিলের পরিবর্তে ব্যবহার করছে মিকচার বা ঝাক্কি। কাশির সিরাপ, ভিটামিন ট্যাবলেট, ঘুমের ও ক্যালসিয়াম ট্যাবলেট দিয়ে তৈরি করা হয় এই মিকচার। আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এক শ্রেণির অসাধু ফার্মেসী মালিকরা চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র ছাড়াই এসব দেদারছে বিক্রি করছে।

আর এই ট্যাবলেটা এইচ ব্লক গুদরাঘাটে একমাএ তন্বী ফার্মেসীতেই বেশী বিক্রয় করা হয় বলে যানা যায়।

এদিকে বিভিন্ন কৌশলে মাদকসেবীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায় করে লাভবান হচ্ছেন ফার্মেসীর মালিকরা। এসব হাতের নাগালে পাওয়ায় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরাও এই নেশায় আসক্ত হয়ে পড়ছেন। যা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ক্ষতিকর।

জানা গেছে, ৭৫ মি.গ্রাম’র একপাতা (১০টি) লোপেন্টা ট্যাবলেটের নির্ধারিত মূল্য ২০০ টাকা। কিন্তু ওষুধ ফার্মেসী মালিকরা একপিস লোপেন্টা ট্যাবলেট’র দাম নিচ্ছেন ৪০ থেকে ৪৫ টাকা। মাদক সেবীরা লোপেন্টা ছাড়াও পেন্টাডল ওষুধ ইয়াবার বিকল্প হিসেবে সেবন ও মিকচার তৈরি করেও সেবন করে। একারনে পেন্টাডল ট্যাবলেটের দামও নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে কয়েক গুণ বেশি নেওয়া হচ্ছে। লোপেন্টা ও পেন্টাডল ট্যাবলেট দুটোই ব্যাথানাশক ট্যাবলেট।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক মাদকাসক্ত জানিয়েছেন, লোপেন্টা ট্যাবলেটের নেশা ইয়াবার মতই। এছাড়াও তারা পেন্টাডল, সিনট্রা ট্যাবলেটসহ বিভিন্ন উচ্চমাত্রার ঘুমের ট্যাবলেট কাশের সিরাপের সঙ্গে মিশিয়ে মিকচার বা ঝাক্কি তৈরি করে সেবন করে। এই মিকচার সেবনে তাদের ফেন্সিডিলের মতই নেশা হয় বলে জানায় তারা। ওষুধ ফার্মেসীতে এসব ওষুধের দাম বেশি নেওয়ায় তাদের কোন সমস্যা হয়না। হাতের নাগালে পাওয়া যাচ্ছে এতেই তারা খুশি।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স’র মেডিকেল অফিসার ডা. নাহিদা সুলতানা খবরের আলোকে  বলেন, সিনট্রা, লোপেন্টা, পেন্টাডল এই ওষুধগুলো মাদক হিসেবে সেবন করা শরীরের জন্যে মারাত্বক ক্ষতিকর। মাদক সেবনে শরীরে যে পাশর্^প্রতিক্রিয়া হয় এগুলো সেবনে সে রকমই পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া শরীরে সৃষ্টি করে। এগুলো মাদক হিসেবে সেবনে চোঁখ ও কিডনির ওপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com