জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৫৫দিন
:
১৯ঘণ্টা
:
৪৩মিনিট
:
৩৭সেকেন্ড

মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারী ২০২০, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন

বিরোধের জেরে ধামরাইয়ে আওয়ামী লীগের সম্মেলন স্থগিত

খবরের আলো :

 

 

মোঃ জাকির হোসেন :– ঢাকার ধামরাইয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপিকে বাইরে রেখে সম্মেলন করার প্রস্তুতি নিলেও তা স্থগিত করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটি। এর আগে উপজেলার বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন সম্মেলনে একপেশে কমিটি করার অভিযোগ উঠে স্থানিয় এমপি ও ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমেদের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার রাতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ডাক্তার দীপু মনি ধামরাই উপজেলা কমিটির সম্মেলন স্থগিত করার নির্দেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করে ধামরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাকু বলেন, কেন্দ্র থেকে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ডাক্তার দীপু মনি ধামরাইয়ের সাংসদ ও ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বেনজীর আহমেদকে ফোনে এ নির্দেশনা জানান। আজ সকালে পূর্ব নির্ধারিত ইউনিয়নের সম্মেলনে উপস্থিত হন স্থানীয় এমপি বেনজির আহমদ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাকু। এসময় সম্মেলন স্থগিতের কথা জানিয়ে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সিরাজ উদ্দিনের সঞ্চালনায় এক সভায় বক্তৃতা রাখেন নেতারা। এমপি বেনজির আহমেদ বলেন, সাবেক এমপি এম এ মালেক আমার সময়ে সকল অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেছেন। অথচ তিনি কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে অভিযোগ করে সম্মেলন স্থগিত করার অনুরোধ করেন। তিনি অভিযোগ করেন তাকে (মালেক) ছাড়া সকল সম্মেলন করা হয়েছে। তিনি কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীদের বলেছেন আমাকে ছাড়া যদি কোন সম্মেলন করা হয় তবে সেখানে মারামারি, হট্রগোল হবে। তিনি আরো বলেন, গত ৫ বছরে তিনি যে অরাজকতা করেছেন সে জন্য তিনি ধামরাই আসতে পারেন না। তার ন্যাক্কারজনক কাজের জন্য ধামরাইয়ের সকল নেতাকর্মী, সাধারণ মানুষ সাবেক এমপি মালেককে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি মালেক ও সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাকুর চিঠির ভিত্তিতে ওয়ার্ড পর্যায়ে, ইউনিয়ন পরিষদের সম্মেলন হয়েছে। তিনি সেখানে উপস্থিত ছিলেন না, আমি থেকেছি। এখন সে কেন্দ্রীয় নেতাদের ভূল বুঝিয়েছেন যে তাকে ছাড়াই সম্মেলন করা হচ্ছে। এসময় সুতিপারা ইউনিয়নের স্থগিত হওয়া সম্মেলনে উপস্থিত নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করে তাদের সান্তনা দেন এবং আওয়ামী লীগের সাথে সবসময় থাকার নির্দেশ দেন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমপি বেনজির আহমদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌর সভার মেয়র আলহাজ্ব গোলাম কবীর মোল্লা, সুতিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সফল চেয়ারম্যান মোঃ রেজাউল করিম রাজা, সূয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের সফল চেয়ারম্যান মোঃ হাফিজুর রহমান সোহরাব, প্রমোখ। তাছাড়া ধামরাই উপজেলার আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ জাকির হোসেন বলেন আমাদের নান্নার ইউনিয়নের চাউনা কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে বৃহস্পতিবার ত্রী বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয় সব কিছু গেছানোর পর মঙ্গলবার মধ্যে রাতে শুনতে পাই সম্মেলনে স্থগিত করা হল। আমরা অনেক নেতা কর্মীকে দাওয়াত করেছি, স্টেজ প্যান্ডেল, রান্নাবান্না সহ ষকল আয়োজন মাটি হয়ে গেছে। যাদের জন্য এি আয়োজন স্থগিত হল তাদেরকে ধিক্কার জানাই এবং অবিলম্বে নান্নার ইউনিয়নের সম্মেলন সফল করা হক এই আহ্বান জানান তিনি। এদিকে কেন্দ্রীয় নেতাদেরকে এমএ মালেক ভুল বুঝিয়েছেন বলে দাবি করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাকু। তিনি বলেন, ধামরাইয়ের সব ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড পর্যায়ে সম্মেলন শেষ, ইউনিয়ন পরিষদের সম্মেলন শেষ পর্যায়ে তখন সাবেক এমপি এম এ মালেক কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীদের ভুল বুঝিয়েছেন। তাই কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশে সম্মেলন স্থগিত করা হয়েছে। অন্যদিকে ধামরাই উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এমএ মালেক বলেন, ধামরাইয়ে আমি উপজেলা সভাপতি থাকা সত্বেও আমাকে বাদ রেখে অসাংগঠনিক উপায়ে কমিটি করা হয়েছে। আমি তার প্রতিবাদ করেছি। এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় কমিটিকে জানিয়েছি। বিষয়টি জানার পর কেন্দ্রীয় কমিটি যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com