জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৫৫দিন
:
১৯ঘণ্টা
:
৪৩মিনিট
:
৩৭সেকেন্ড

মঙ্গলবার, ০৪ অগাস্ট ২০২০, ০২:১৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
হত্যার দায় সিনহার সঙ্গে থাকা সিফাতের ওপর চাপিয়েছে পুলিশ শেখ হাসিনা প্রমাণ করেছে সঠিক নেতৃত্ব দিতে পারলে দুর্যোগ মোকাবেলা সম্ভব -তথ্যমন্ত্রী করোনা জয় করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান : ফুলের শুভেচ্ছা ধর্ম যার যার উৎসব কিন্ত সবার -তথ্যমন্ত্রী পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কোলা ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শাহিনুর ইসলাম স্বপণ  অবশেষে ফিটিং মামলায় তিন সাংবাদিক নির্দোষ বদলগাছীতে পুলিশের সর্বত্র নিরাপত্তা জোরদার -মোটরসাইকেল মহড়া বদলগাছীতে শেষ মূহুর্তে  শব্দে মুখরিত কামার পল্লী   সামাজিক দূরত্ব মেনে স্পেনে ঈদুল আযহা উদ্‌যাপন  ধামরাই শ্রীরামপুর বাজারে ঢাকা ফার্মেসীর ওপর সন্ত্রাসী হামলা

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রতিবেদন সুপ্রিম কোর্টে পাঠিয়েছে বিএসএমএমইউ

খবরের আলো :

 

 

বুধবার, ১১ ডিসেম্বর : বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রতিবেদন সুপ্রিম কোর্টে পাঠিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ)। বুধবার বিকেলে এ প্রতিবেদন পাঠায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এদিকে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে করা আবেদনটি আপিল বিভাগের আগামীকাল বৃহস্পতিবারের (১২ ডিসেম্বর) কার্যতালিকার ১২ নম্বরে রাখা হয়েছে। বুধবার (১১ ডিসেম্বর) খালেদা জিয়ার আইনজীবী প্যানেলের অন্যতম সদস্য ব্যারিস্টার একেএম এহসানুর রহমান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে আপিল আবেদনটির ওপর আগামীকাল শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে গত ৫ ডিসেম্বর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মেডিকেল প্রতিবেদন জমা দিতে পারেনি রাষ্ট্রপক্ষ। সে সময় আরো কিছু স্বাস্থ্যগত পরীক্ষা বাকি আছে বলে জানিয়ে সময় প্রার্থনা করে রাষ্ট্রপক্ষ। পরে ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে অবশ্যই মেডিকেল প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দেয় আপিল বিভাগ। ওই দিনই জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার জামিনের শুনানি করা হবে বলে আপিল বিভাগ আদেশ দেয়া হয়।

গত ২৮ নভেম্বর সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা জানতে তার বিষয়ে গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। ৫ ডিসেম্বরের মধ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল বোর্ডকে এই প্রতিবেদন দাখিল করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।

খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে দেশের সর্বোচ্চ আদালত আপিল বিভাগের সংশ্নিষ্ট শাখায় গত ১৪ নভেম্বর আবেদন করেন তার আইনজীবীরা। পরে ১৭ নভেম্বর আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত আবেদনটি নিষ্পত্তির জন্য প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে পাঠিয়ে দেন। এরই ধারাবাহিকতায় জামিন আবেদনটি আপিল বিভাগে কার্যতালিকাভুক্ত হয়।

৩১ জুলাই হাইকোর্টের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দেন। এরপর ১৪ নভেম্বর সাতটি গ্রাউন্ডে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে আপিল আবেদন করা হয়। ১৭ নভেম্বর আবেদনটি আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি মো. নূরুজ্জামানের আদালতে উপস্থাপন করা হয়। ২৫ নভেম্বর শুনানির পর বিচারক সেটি আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত বছরের ২৯ অক্টোবর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে সাত বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়। পাশাপাশি ১০ লাখ টাকা টাকা জরিমানা করা হয়। এ মামলায় খালেদা জিয়ার সঙ্গে আরো তিন আসামিকে ৭ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়।

রায়ের পর ২০১৮ সালের ১৮ নভেম্বর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে খালাস চেয়ে আপিল করেন খালেদা জিয়া।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com