বৃহস্পতিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২০, ০৮:২৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
সিরাজগঞ্জে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে দাদা গ্রেপ্তার অসহায় হতদরিদ্র ঝুমার পাশে কেউ নেই শ্রীপুরে অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে ধর্ষণ ঝালকাঠিতে এতিম শিশুদের নিয়ে পুলিশ সুপারের মধ্যাহ্নভোজ ও কম্বল বিতরন ঝালকাঠিতে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ভ্রাম্যমান আদালতে ৭ জনকে জেল-জরিমানা পারিবারিক কলহের কারণে শ্বশুরবাড়িতে এক যুবকের আত্মহত্যা রোহিঙ্গাক্যাম্পে অবাধে ব্যবহার হচ্ছে মিয়ানমারের সিমকার্ড পূজার দিনে ভোটগ্রহণ না করার দাবিতে মানববন্ধনে রাবি শিক্ষার্থীরা নির্বাচন নিয়ে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল, রবিবার শুনানি প্রথম আলোর সম্পাদকসহ ১০ জনকে গ্রেফতারের নির্দেশ

শ্রীপুরে অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে ধর্ষণ

খবরের আলো :

 

 

শ্রীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুরের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে নয়নপুর এলাকায় অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বুধবার (১৫ জানুয়ারি) রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে শ্রীপুর থানায় মামলা করেছেন।আসামিরা হলেন- নয়নপুর এলাকার সোহরাবের ছেলে শরীফ (১৮), লিটনের ছেলে সুজন (১৯), নয়নপুর এলাকার হারুনের বাড়ির ভাড়াটিয়া কবিরের স্ত্রী উর্মি (১৮) ও শরীফ (২০)। আসামি উর্মিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।ওই ছাত্রীর মা জানান, তিনি স্থানীয় একটি কারখানায় অপারেটর হিসেবে কাজ করেন। তার মেয়ে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। বিদ্যালয়ের যাওয়া-আসার পথে নয়নপুর এলাকার সোহরাবের ছেলে তাকে প্রেম প্রস্তাবসহ বিভিন্ন ধরনের কুপ্রস্তাব দেয়। তার প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় অপহরণের হুমকিও দেয়।তিনি বলেন, বুধবার কারখানার কাজ শেষে রাত ১০টায় বাসায় এসে মেয়েকে দেখতে না পেয়ে আশপাশে খোঁজাখুঁজি শুরু করি। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে নয়নপুর গ্রামের জনৈক আসাদ মোল্লার বাড়ির পাশে ঝোপের ভেতর থেকে মেয়েকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাই। চিকিৎসা শেষে জ্ঞান ফিরে আসলে মেয়ে জানায়, রাত ৮টার দিকে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে গেলে শরীফ মুখে গামছা দিয়ে তাকে তুলে নিয়ে যায়। নয়নপুর গ্রামের জনৈক আসাদ মোল্লার বাড়ির পাশে ঝোপে নিয়ে তাকে নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যায়।শ্রীপুর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) নাজমুস সাকীব জানান, এ ঘটনায় মামলার চার নম্বর আসামি উর্মিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভিকটিমকে উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাবি আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com