জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৫৫দিন
:
১৯ঘণ্টা
:
৪৩মিনিট
:
৩৭সেকেন্ড

শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১২:৫৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনে মাদ্রিদে প্রস্তুতি সভা সিরাজগঞ্জে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলায় ৫ সাংবাদিক আহত ধামরাইয়ে প্রগতি মহিলা সমবায় সমিতির উদ্যোগে চতুর্থ বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ঝিনাইদহে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে সড়ক আলপনা কুয়াকাটায় পাউবোর জমিতে তোলা হচ্ছে অবৈধ স্থাপনা কলাপাড়ায় তামাকজাত দ্রব্যের প্রচার ও পৃষ্ঠপোষকতা নিষিদ্ধকরণ বিষয়ক কর্মশালাকলাপাড়ায় তামাকজাত দ্রব্যের প্রচার ও পৃষ্ঠপোষকতা নিষিদ্ধকরণ বিষয়ক কর্মশালা বগুড়ায় বাস থেকে নামিয়ে প্রকাশ্যে বিএনপিকর্মীকে কুপিয়ে হত্যা! শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য প্রস্তুত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার গুণীজনদের হাতে একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী ভোলা-৪ আসনের সংসদ সদস্য জ্যাকবের বিরুদ্ধে কমিশন বাণিজ্যের অভিযোগে সাংবাদ সম্মেলন

পুলিশের উপস্থিতিতেই সাংবাদিকদের আটকে দাপট দেখালো ছাত্রলীগ

খবরের আলো:

 

 

 

শনিবার, ০১ ফেব্রুয়ারী :ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে ভোটের তথ্য সংগ্রহে গিয়ে শারীরিকভাবে হেনস্তার শিকার হয়েছেন দুই সাংবাদিক। এমনকি পুলিশের উপস্থিতিতেই তাদের আটকে রেখে মোবাইল ফোনের যাবতীয় তথ্য ও ছবি মুছে ফেলেছেন ছাত্রলীগ নেতা রিয়াদ।

শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে দশটার দিকে ঢাকা দক্ষিণের গেন্ডারিয়ার ৪৬ নম্বর ওয়ার্ডের জামিয়া আরাবিয়া ইমদাদুল উলূম ফরিদাবাদ মাদ্রাসা ভোটকেন্দ্রে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে এমন লাঞ্ছনার শিকার হয়েছেন দুই সাংবাদিক।

সাংবাদিক দুজন হলেন-বাংলাদেশ প্রতিদিনের মাহবুব মমতাজী এবং বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের নুরুল আমিন জাহাঙ্গীর।

জানা গেছে, ভোটকেন্দ্র থেকে তথ্য নিয়ে বের হয়ে আসার সময় সাংবাদিকদের পথ আটকান গেন্ডারিয়া থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রিয়াদ। এসময় বাংলাদেশ প্রতিদিনের মাহবুব মমতাজীর জামার কলার ধরে টানাহেঁচড়া ও ইসির দেয়া ভোট পরিদর্শন কার্ড ছিঁড়ে ফেলার চেষ্টা করেন ওই ছাত্রলীগ নেতা।

মাহবুব বলেন, ` বেলা ১১টা ৪৫ মিনিটের দিকে একটি বুথে দুই ভোটার তাদের ভোট দিতে পারেননি বলে অভিযোগ করেন। আমরা ওই দুই ভোটারের ছবি তুলি এবং তাদের মতামত নিই।`

রিয়াদ তাদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়েছে বলেও অভিযোগ করেন মাহবুব। পরে মোবাইল ফোন উদ্ধারে ভোটকেন্দ্রের ইনচার্জ গেন্ডারিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মাহমুদ এবং সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আরিফকে বিষয়টি জানায় মাহবুব ও জাহাঙ্গীর।

কিন্তু পুলিশ তাদেরকে কোনো সহায়তা করেনি সেসময়। অভিযোগ করা হলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, ‘ছাত্রলীগ নেতাকে কিছু বলতে পারবেন না’। এসময় তাদের কাছে থাকা নোটবইও ছিঁড়ে ফেলা হয়।

পরে দুই সাংবাদিক প্রিজাইডিং অফিসারের কাছে গেলে তারাও ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অপরাগতা জানান।

বেলা ১২টার দিকে পুলিশের ওয়ারি জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার হান্নানুল ইসলাম সেখানে যান। কমিশনারের উপস্থিতিতেই সাংবাদিকদের মোবাইল ফোনের যাবতীয় তথ্য ও ছবি মুছে ফেলা হয় বলে জানান মাহবুব। এরপর প্রায় একঘণ্টা আটকে রাখার পর ওই ভোটকেন্দ্র থেকে বের হতে দেয়া হয় দুই সাংবাদিককে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com