জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৫৫দিন
:
১৯ঘণ্টা
:
৪৩মিনিট
:
৩৭সেকেন্ড

বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৯:৩৩ পূর্বাহ্ন

শ্রীপুরে মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে

শ্রীপুরে পুলিশের বিরুদ্ধে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

খবরের আলো :

 

 

শ্রীপুর (গাজীপুর )প্রতিনিধি:গাজীপুরের শ্রীপুরে কেওয়া গ্রামে মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে অটোরিক্সা চালক সুজনের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম-২ এর বিরুদ্ধে। সুজন কেওয়া গ্রামের মৃত কাদিরের ছেলে। সোমবার (১০ফেব্রুয়ারি )বিকেলে শ্রীপুর পৌরসভার কেওয়া বাজার (দক্ষিন পাড়া) গ্রামের শতাধিক নারী-পুরুষ ওই পুলিশ কর্মকর্তার বিচার দাবীতে বিক্ষোভ করে।অটোরিক্সা চালক সুজনের স্ত্রী হাসনা বেগম জানান, গত কয়েকদিন আগে শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম-২ প্রায় সময়ই রাতের বেলা তাদের বাড়ীতে জোরপূর্বক প্রবেশ করে। পরে ঘরে মাদক থাকার কথা বলে ঘরে থাকা মালামাল তছনছ করে। মাদক না পেয়ে মিথ্যা মামলার ভয় দেখিয়ে ১২ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়ে যায়।এলাকাবাসী জানায়, গত ৯ ফেব্রুয়ারী (রোববার) রাতে আবারো এসআই রফিকুল ইসলাম-২ এক দল পুলিশ ও তার সোর্স নিয়ে মাদকের থাকার কথা বলে সুজনের বসত ঘরে অভিযান চালায়। মাদক না পেয়ে অটোরিক্সা চালক সুজনকে মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা হাতানোর চেষ্টা করে। সুজনকে আটক করে নিয়ে আসার সময় এলাকাবাসীর সাথে পুলিশের হাতা-হাতি হয়। এক পর্যায়ে পুলিশ সুজনের স্ত্রী পোশাক শ্রমিক হাসনাকে হাতে থাকা বন্ধুক দিয়া আঘাত করলে সে রক্তাক্ত জখম হয়। পরে পুলিশ সুজনকে থানায় নিয়ে আসে। পরে সুজন, তার ভাই সুমন, মা হামিদা খাতুন ও এলাকার সাইফুল ইসলামের নামে ২০পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ দেখিয়ে তাদের নামে মিথ্যা মাদক মামলা দায়ের করে। সুজন বর্তমানে জেল হাজতে থাকলেও অন্যান্য আসামীরা পুলিশে ভয়ে এলাকা ছাড়া রয়েছে।এলাকাবাসীর আরো জানায়, গত কয়েকদিন আগে এসআই রফিকুল ইসলাম-২ ওই এলাকার প্রতিবন্ধী আসাদুল্লাহকে মারধর করে তার ছেলে ফরিদকে মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে নগদ ২৫ হাজার টাকা, আব্দুল হামিদের ছেলে মজিবুর রহমানের কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।প্রতিবেশী সাইফুল ইসলামের মা শাহনাজ বেগম জানান, এসআই রফিকুল ইসলাম-২ আমার ছেলের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়েছে। রফিক দারোগার অত্যাচারে আমরা অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছি। আমরা দারোগা রফিকের হাত থেকে নির্যাতনের বিচার চাই।অভিযুক্ত শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম-২ জানান, অটোরিক্সা চালক সুজন ও তার নিকট আত্মীয়রা মাদক ব্যবসায়ী না হলে আমি আপনাকে (সাংবাদিককে) এক লাখ টাকা পুরষ্কার দিব। তিনি আরো বলেন, মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা নেওয়ার প্রমাণ দেখাতে পারলে আমি চাকরি ছেড়ে দিব।গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এডিশনাল এসপি) জহিরুল ইসলাম জানান, ওই পুলিশ অফিসার যদি মাদক মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা নিয়ে থাকে তাহলে তদন্ত করে প্রমাণীত হলে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাছাড়া ভুক্তভোগীদেরকে ওই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ দেওয়ার জন্য পরামর্শ দেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com