জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৫৫দিন
:
১৯ঘণ্টা
:
৪৩মিনিট
:
৩৭সেকেন্ড

সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ০১:০৩ পূর্বাহ্ন

ব্যবসায়ীরা চালসহ নিত্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে দিলে কঠোর ব্যবস্থার

বুধবার, ১৮ মার্চ :করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে ব্যবসায়ীরা চালসহ নিত্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে দিলে কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি দিয়েছে সরকার। বাজারে চালের দাম বাড়ার খবরের মধ্যেই নিত্যপণ্য ‘যথেষ্ট মজুদ’ থাকার কথা জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। আর রাজধানীতে বাজার নজরদারিতে অভিযান শুরু করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, করোনাভাইরাস আতঙ্কে বাজারে বেড়েছে নিত্যপণ্যের বিক্রি। বিশেষ করে চাল, ডাল, আটা, ময়দা ভোজ্যতেল, চিনি ইত্যাদি পণ্য কিনে মজুদ করছে ক্রেতারা। এ সুযোগে অনেক অসাধু ব্যবসায়ী বাড়িয়ে দিচ্ছেন নিত্যপণ্যের দাম, করছেন মজুদ। মজুদকারীদের ধরতে বিশেষ অভিযানে নেমেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। রাজধানীর দশটি বাজারে সাতটি টিম পাইকারি ও খুচরা বাজারে অভিযান চালিয়েছে। অভিযানে জরিমানার পাশাপাশি ব্যবসায়ী ও ভোক্তাদের সতর্ক করছে তারা।

ভোক্তা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার ঢাকা টাইমসকে জানান, করোনা আতঙ্ককে পুঁজি করে অনেকে বাড়তি মুনাফার লোভে নিত্যপণ্যের দাম বাড়িয়েছে। কোনো কোনো ক্রেতা বেশি করে পন্য কিনছেন। আর এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে অতিরিক্ত দাম নিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

তিনি বলেন, ‘রাজধানীর কারওয়ান বাজারসহ কয়েকটি বাজারে গিয়ে দেখা গেছে, যারা এক প্যাকেট গুড়া দুধ কিনতো তারা পাঁচ প্যাকেট দুধ কিনছে। অভিযানে আমরা ক্রেতাদের এসব পণ্য বেশি করে কিনতে নিষেধ করেছি। কারণ দেশে এমন কোন অবস্থার সৃষ্টি হয়নি যে নিত্যপণ্যের মজুদ করতে হবে।’

করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে একজনের মৃত্যু হয়েছে। আরও ১৪ জনের শরীরে শনাক্ত হয়েছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। করোনা যেন বিস্তার করতে না পারে প্রয়োজন হলে সরকার বেশ কিছু এলাকা শাটডাউন করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ‘অভিযানে প্রতিটি বাজার সমিতির নেতাদের ও সাধারণ মানুষকে সতর্ক করছি আমরা। ক্রেতারা যেন চাহিদার অতিরিক্ত পণ্য না কেনেন। আর বিক্রেতারা যেন মূল্য বেশি না নেন এবং কেউ বেশি পণ্য কিনতে চাইলে তাদের যেন নিষেধ করে এ বিষয়ে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। একই সঙ্গে যারা মজুত করছেন তাদের সতর্কতার পাশাপাশি আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।’

অধিদপ্তরের সাতটি টিম রাজধানীর কারওয়ান বাজার, নিউমার্কেট, হাতিরপুল, উত্তরা, পুরান ঢাকা, পাইকারি বাজার মালিবাগ, রামপুরাসহ বিভিন্ন এলাকায় দিনব্যাপী এ অভিযান পরিচালনা করে। একইসঙ্গে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য তালিকা সহজে দৃশ্যমান স্থানে লটকিয়ে প্রদর্শন করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়।

এদিকে বুধবার দুপুরে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি সাংবাদিকদের বলেছেন, বর্তমানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও খাদ্যশস্যের যথেষ্ট মজুদ রয়েছে। তাছাড়া নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্যের সরবরাহ ও মজুত পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। তাই প্রয়োজনের চেয়ে বেশি পণ্য ক্রয় করে অযথা বাজার অস্থির না করতে জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।সুত্রঃঢাকাটাইমস

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com