জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা
৫৫দিন
:
১৯ঘণ্টা
:
৪৩মিনিট
:
৩৭সেকেন্ড

শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ০৭:০৭ পূর্বাহ্ন

করোনা থেকে মুক্তি পেতে স্পেনে সমস্বরে ধ্বনিত হল আযান

খবরের আলো :

 

 

কবির আল মাহমুদ, স্পেন :‘আল্লাহু আকবার’ আযানের সুর ধ্বনিত হলো ইউরোপের দেশ স্পেন। ঘরের জানালা বা বারান্দায় দাঁড়িয়ে স্থানীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা ৩০মিনিটে সম্মিলিতভাবে মাগরিবের আযান দিলেন দেশটিতে বসবাসরত মুসলিম কমিউনিটি। বাইরে উচ্চস্বরে আযান দেয়ার অনুমতি না থাকায় এতদিন মসজিদের ভেতরে বক্স ব্যবহার করে স্বল্পমাত্রার ভলিউমে আজান দেয়া হতো সেখানে। যার আওয়াজ মসজিদ গণ্ডিতেই সীমবদ্ধ ছিল। তবে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য মুসলমানদের আজান আয়োজনের আবেদনে সম্মতি প্রকাশ করে দেশটির প্রশাসন।

জানা যায়, করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য স্রষ্টার কৃপা কামনায় সম্মিলিতভাবে একই সময়ে নিজ ঘরের বারান্দা, জানালা এবং রাস্তায় দাঁড়িয়ে আযান দেয়ার জন্য মুসলিম কমিউনিটির পক্ষ থেকে বাংলাদেশি মানবাধিকার সংস্থা ‘ভালিয়ান্তে বাংলা’ আবেদন করে। কর্তৃপক্ষও তাতে সম্মতি প্রদান করে। তবে এ ক্ষেত্রে আজানের ব্যাপ্তি ৫ মিনিটের বেশি হতে পারবে না বলে সতর্ক করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার এ সংক্রান্ত সংবাদ স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম ইউরোপা প্রেস এর একটি প্রতিবেদনেও প্রকাশিত হয়। ‘ভালিয়ান্তে বাংলা’ এর সভাপতি মো. ফজলে এলাহী বলেন, স্পেনে মুসলিম শাসনের অবসান হওয়ার পর আর উচ্চস্বরে বাইরে আযানের ধ্বনি শোনা যায়নি। যে ভয়াবহ করোনাভাইরাস প্রকোপ ছড়িয়েছে স্পেনে, সেজন্য এ বিপদ থেকে মুক্তির জন্য উচ্চস্বরে একই সময়ে আযান দেয়ার অনুমতি আমরা চেয়েছিলাম। স্পেনের কর্তৃপক্ষও আমাদের সে অনুমতি দেয়। সেজন্য সুন্দরভাবে মাদ্রিদ, বার্সেলোনাসহ স্পেনের বিভিন্ন শহরের মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় আযান দেয়া হয়েছে।
তবে এর আগে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে একবার স্পেনের গ্রানাডা-আন্দালুসিয়ার ঐতিহাসিক আলহামব্রা প্যালেসে আজান দেয়া হয়েছিল। এ আলহামব্রা প্যালেস মুসলিম শাসক ইউসুফ ১৩৩০ সালে নির্মাণ করেছিলেন। ১৪৯২ সালে স্পেন খ্রিস্টানদের শাসনে পরিণত হয়। সে সময় এ প্রাসাদটি দেশটির বুদ্ধিজীবী ও গুণীশিল্পিদের জন্য ব্যবহৃত হতো।

উল্লেখ্য, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আধিক্যতার হিসেবে স্পেনের অবস্থান তৃতীয়। দেশটিতে শুক্রবার পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২১ হাজার ৫১০জন ও মৃত্যুবরণ করেছেন ১হাজার ৯৩ জন। সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৫৮৮ জন। করোনাভাইরাস মোকাবেলায় দেশটিতে ১৪ মার্চ থেকে জরুরি রাষ্ট্রীয় সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com