রবিবার, ২২ নভেম্বর ২০২০, ০৭:১৪ অপরাহ্ন

‘মিথ্যা মামলা’ প্রত্যাহার ও নেতাকর্মীদের মুক্তি দাবি রিজভীর

পুরোনো ছবি

খবরের আলো :

 

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ অর্ধশতাধিক নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা ‘মিথ্যা মামলা’ অনতিবিলম্বে প্রত্যাহার ও গ্রেফতার নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবি জানিয়েছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ মঙ্গলবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি করেন তিনি।

রিজভী বলেন, বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে আগে থেকেই পুলিশের অভিযোগ রেডি থাকে। আজগুবি এসব অভিযোগের ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। বিএনপি মহাসচিবসহ ৫৫ জন নেতার বিরুদ্ধে নতুন করে যে মামলা দেওয়া হয়েছে সেটি এরই অংশ।

প্রসঙ্গত, রাষ্ট্রীয় কাজে বাধা ও সরকার বিরোধী উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীসহ ৫৫ বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পুলিশ বাদী হয়ে রোববার দিবাগত রাতে হাতিরঝিল থানায় মামলাটি করে।  মামলার বাদী হিসেবে হাতিরঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শরীফুল ইসলামের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

মামলায় গ্রেফতার হওয়া সাত আসামিকেও সোমবার আদালতে হাজির করে এক দিন করে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। রিমান্ডে নেওয়া নেতারা হলেন- কুমিল্লা জেলা বিএনপির সহসভাপতি মোবাশ্বের আলম ভূইয়া, ঢাকা উত্তর যুবদলের ৪১ নম্বর ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি সামছুল হক ও সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন, গুলশান ১৮ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি রাশেদ বিন সোলায়মান, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৪৮ নম্বর ওয়ার্ড কমিশনার শফিউদ্দিন, ময়মনসিংহের ভালুকা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন ও লাঙ্গলকোট থানা ছাত্রদলের সাবেক নেতা শিহাব খন্দকার।

মামলার এজাহারে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিবুন নবী খান সোহেলের নামও উল্লেখ করা হয়েছে।

আসামির বিরুদ্ধে রোববার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশে যাওয়ার সময় মগবাজার রেলগেট এলাকায় পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি ও সোহরাওয়ার্দীর সমাবেশ থেকে নাশকতায় উসকানি দেয়ার অভিযোগ করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী বলেন, রোববার সোহরাওয়ার্দীর সমাবেশে লোকসমাগমে বিঘ্ন সৃষ্টি করা হয়েছে। অহেতুক নেতাকর্মীদের হয়রানি করা হয়েছে। কয়েকজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

হামলা-মামলা করে বিএনপিকে দমানো যাবে না উল্লেখ করে রিজভী বলেন, সরকারের কাছে দাবি করছি অনতিবিলম্বে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করুন। দেশে নির্বাচনের একটি সুষ্ঠু পরিবেশ কায়েম করুন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন প্রমুখ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com