সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন

অশ্রুসিক্ত নয়নে প্রিয় নেতাকে শ্রদ্ধা

খবরের আলো রিপোর্ট :

 

 

জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় সম্পন্ন হয়েছে সাবেক মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের প্রথম নামাজে জানাজা। এরপর রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সহ দলের সর্বস্তরের নেতা-কর্মী ও জনতার অংশগ্রহণে এই মহান নেতার মরা দেহে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। অশ্রুসিক্ত নয়নে তারা প্রিয় নেতাকে শেষ বিদায় জানালেন।
আজ রোববার (৬ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার পর তার প্রথম জানাজা সম্পন্ন হয়েছে।
জানাজায় রাষ্ট্রপতি ছাড়াও অংশ নেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, আওয়ামী লীগের নেতা ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়াসহ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগের অসংখ্য নেতাকর্মীরা।

জানাজা শেষে গার্ড অব অনার দেওয়া হয় মুক্তিযুদ্ধের বীরসেনানী সৈয়দ আশরাফকে। এর পরপরই তার মরদেহে শ্রদ্ধাঞ্জলী দেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। তারপর মরহুমের মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। এরপর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী, ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া, বিরোধী দলের শীর্ষ নেতারা,  বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ প্রমুখ।
সর্বস্তরের জনতার জন্য শ্রদ্ধা নিবেদন উন্মুক্ত করে দেওয়ার আগে মরহুম আশরাফের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

প্রসঙ্গত, সংসদ ভবনে প্রথম জানাজা শেষে হেলিকপ্টারযোগে মরদেহ কিশোরগঞ্জে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে দুপুর ১২টায় শোলাকিয়া ঈদগাহে মরহুমের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। তৃতীয় জানাজা বেলা ২টায় ময়মনসিংহের আঞ্জুমান ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হবে। এরপর হেলিকপ্টারযোগে কিশোরগঞ্জ থেকে সৈয়দ আশরাফের মরদেহ ফের ঢাকায় আনা হবে এবং বিকেলে বনানী করবস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন তিনি।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার রাতে থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সৈয়দ আশরাফ মারা যান। শনিবার (৫ জানুয়ারি) তার মরদেহ দেশে আনা হয়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com