মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৩:১০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মাধবপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান গাজীপুরে পোশাক নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার ত্রিশালে রাস্তার দূর্ভোগে লালপুর-কৈতরবাড়ী ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা হলে অপরাধীদের মধ্যে ভীতিও থাকবে: কাদের ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাহাড়পুর একিয়া ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিনব কায়দায় রোগীর সাথে প্রতারণা নবাবগঞ্জে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর লাশ উদ্ধার মাধবপুরে করোনার ভাইরাসের সুযোগে বালু খেকোদের রমরমা ব্যবসা নৌকায় ভোট দেয়ার অপরাধে বিএনপি দলগতভাবেই এইসব অপকর্ম করেছিল -তথ্যমন্ত্রী বড়াইগ্রামে জোর পুর্বক ঘরবাড়ি ভাংচুর করে রাস্তা নির্মাণ

চিকিৎসকের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ

খবরের আলো রিপোর্ট :

 

 

ময়মনসিংহের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসকের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ করেছে প্রসূতির পরিবার। শিশুটির গাল ও পিঠে কাটার চিহ্ন রয়েছে। রোগীর স্বজনরা অভিযোগ করেন সিজার করার সময় ব্লেডের আঘাতে শিশুটির একাধিক স্থানে কেটে যায়। এতে অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণের কারণেই শিশুটির মৃত্যু হয়।এ ঘটনায় পুলিশ হাসপাতালের তিন পরিচালককে আটক করেছে। আটককৃতরা হলেন রেজাউল করিম মুরাদ, আজাহার মাহমুদ জুয়েল ও  আশরাফুর রহমান রনিস।জানা যায়, ২০ জানুয়ারি রোববার রাত ১২টার দিকে নগরীর কৃষ্টপুর আলিয়া মাদরাসা রোডের বেসরকারি ক্লিনিক পরশ প্রাইভেট হাসপাতালে সিজারের মাধ্যমে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার কল্যাণপুর গ্রামের জান্নাত বেগম (২২) নামের প্রসূতি মায়ের গর্ভ থেকে জন্ম নেয় কন্যা সন্তান। জন্মের আধা ঘণ্টা পর পরিবারের হাতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তুলে দেয় মৃত কন্যা সন্তান। কিন্তু মৃত ওই সন্তানের পিঠে ও গালে কাটার চিহৃ দেখতে পান স্বজনরা। রোগীর স্বজনরা অভিযোগ করেন সিজার করার সময় ব্লেডের আঘাতে শিশুটির একাধিক স্থানে কেটে যায়। আর অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণের কারণেই শিশুটির মৃত্যু হয়।নবজাতকের পিতা পোশাক শ্রমিক হারুন অর রশিদ জানান, ২০ জানুয়ারি রোববার সকাল থেকেই তার স্ত্রী জান্নাতের প্রসব ব্যথা শুরু হয়। রাত ১১টার দিকে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে নগরীর কৃষ্টপুর আলিয়া মাদরাসা রোডের পরশ প্রাইভেট হাসপাতালে ১৬ হাজার টাকা সাব্যস্ত করে তাকে ভর্তি করা হয়। কোনও রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করেই রাত ১২টার সময় সিজারের মাধ্যমে এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেয় জান্নাত। জন্মের আধা ঘণ্টা পর পরিবারের হাতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তুলে দেয় মৃত সন্তান। কিন্তু মৃত ওই সন্তানের পিঠে ও গালে কাটার চিহৃ রয়েছে।তিনি আরও বলেন, হাসপাতালে চিকিৎসকের অবহেলায় আমার নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। আমি তদন্ত পূর্বক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করছি।ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনসুরুল আলম জানান, পরিবারের অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রাইভেট হাসপাতালের তিন পরিচালককে আটক করা হয়েছে। ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান তিনি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com