মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
অন্ন বস্ত্রের সমাধানের পর গৃহহীনদের মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা -তথ্যমন্ত্রী   বিত্ত কখনো রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনা -তথ্যমন্ত্রী বাইডেনের শপথের সব আয়োজন সম্পন্ন, নজিরবিহীন নিরাপত্তা শিগগিরই ভ্যাকসিন বিতরণ কার্যক্রম শুরু : সংসদে প্রধানমন্ত্রী সিরাজগঞ্জে অবৈধ ৩টি ইটভাটায়  ভ্রাম্যমান আদালতে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মকর্তা পরিষদের নির্বাচন ১৪ জানুয়ারি বেলকুচিতে আলোচিত পিতা-পুত্র হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আটক স্পেনে তীব্র তুষারপাতে জনজীবন অচল: যান চলাচল বন্ধ সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের শিক্ষিকা শিউলী মল্লিকা গ্রেফতার দোহারে অবৈধ ড্রেজার পাইপ ভেঙ্গে দিল প্রশাসন 

আইনজীবীদের রোহিঙ্গা বলায় সাখাওয়াতের প্রতি ধিক্কার জানালেন খোকন সাহা

খবরের আলো :

 

 

সাহাদাৎ হোসেন শাহীন নারায়ণগঞ্জ  প্রতিনিধিঃ আইনজীবীদের রোহিঙ্গা বলায় মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেনের প্রতি ধিক্কার জানিয়েছেন মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা।
রবিবার(২০ জানুয়ারি) দুপুরে জেলা পরিষদ সংলগ্ন হিমালয় চাইনিজ রেস্টুরেন্টে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নতুন ডিজিটাল বার ভবন নির্মাণের জন্য নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমানের প্রতিশ্রুত তিন কোটি টাকার প্রথম অংশ হিসেবে এক কোটি টাকার চেক প্রদান অনুষ্ঠানে এড. খোকন সাহা ধিক্কার জানান এড. সাখাওয়াত হোসেন খানের প্রতি।তিনি বলেন, বক্তব্য দেয়ার আজকে আমার কথা ছিলো না, বিবেকের তারণায় আজকে বক্তব্য দিচ্ছি। বারের একজন সাবেক সভাপতি(এড. সাখাওয়াত হোসেন খান) তিনি আইনজীবীদের বলেছেন রোহিঙ্গা। তিনি বলেছেন, বর্তমান কমিটি নাকি আইনজীবীদের রোহিঙ্গা বানিয়ে রাস্তা-ঘাটে বসিয়েছেন। উনি সেদিন কোথায় ছিলেন সাধারণ সভার সময়? এখানে তো বর্তমান কমিটির কোনো স্বার্থ ছিলো না, স্বার্থ ছিলো ডিজিটাল বার ভবন করার। এই কমিটি ও সাধারণ আইনজীবীদের মতামতের উপর ভিত্তি করে এই পুরতান বার ভবন ভাঙ্গা হয়েছে। অতএব এই কাজের জন্য তিনি বর্তমান কমিটিকে দোষারোপ করতে পারেন না। ওনার দোষারোপ দেয়াকে আমি ধিক্কার জানাই। উনি একেক সময় একেক কথা বলে আলোচনায় আসতে চান।
তিনি আরোও বলেন, যারা নিজের বিবেককে দুই লাখ টাকায় বিক্রি করে নমিনেশন প্রত্যাহার করে তাদের হাতে কখনো এই বার কখনো সুরক্ষিত না। উনি একেক সময় একেক কথা বলে আলোচনায় আসতে চান।
তিনি আরোও বলেন, যারা নিজের বিবেককে দুই লাখ টাকায় বিক্রি করে নমিনেশন প্রত্যাহার করে তাদের হাতে কখনো এই বার কখনো সুরক্ষিত না। আজকে যে তারা বলছে তাদের সময় উন্নয়ন হয়েছে, কী উন্নয়ন হয়েছে? তারা ২০০৬ সালে বার ভবন তিন তলা করলো ২৮ লাখ টাকা ব্যায় করে। ২০১০ সালে আমরা বার ভবন চার তলা করলাম ১৬ লাখ টাকা ব্যয় করে। ওনাদের এক আইনজীবী আমাদের শ্রদ্ধেয় তৈমুর সাহেব বলেছিলেন ত্রিশটি কম্পিউটার দিবেন। আজও পর্যন্ত পাইনি। এই কী তাদের উন্নয়ন! ওনাদের এক আইনজীবী এড. আজাদ বিশ্বাস দুই লাখ টাকা লোন নিয়েছিলো সমিতি থেকে এখন পর্যন্ত পরিশোধ হয় নাই সেই লোন।
উক্ত অনুষ্ঠানে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এড. হাসান ফেরদৌস জুয়েলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এড. মোহসীন মিয়ার সঞ্চালানায় উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, জেলা পিপি এড. ওয়াজেদ আলী খোকন, আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এড. আনিসুর রহমান দিপু, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক এড. খোকন সাহা, জেলা আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. মাসুদুর রউফ, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি সামছুল আলম ভূইয়া, এড. নুরুল হুদা, বাংলাদেশ হোসিয়ারী এসোসিয়শেনের সভাপতি ও নাসিক ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাজমুল আলম সজল, জেলা যুবলীগ নেতা এহসানুল হাসান নিপু প্রমুখ

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com