রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:১৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
অন্ন বস্ত্রের সমাধানের পর গৃহহীনদের মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা -তথ্যমন্ত্রী   বিত্ত কখনো রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনা -তথ্যমন্ত্রী বাইডেনের শপথের সব আয়োজন সম্পন্ন, নজিরবিহীন নিরাপত্তা শিগগিরই ভ্যাকসিন বিতরণ কার্যক্রম শুরু : সংসদে প্রধানমন্ত্রী সিরাজগঞ্জে অবৈধ ৩টি ইটভাটায়  ভ্রাম্যমান আদালতে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মকর্তা পরিষদের নির্বাচন ১৪ জানুয়ারি বেলকুচিতে আলোচিত পিতা-পুত্র হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আটক স্পেনে তীব্র তুষারপাতে জনজীবন অচল: যান চলাচল বন্ধ সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের শিক্ষিকা শিউলী মল্লিকা গ্রেফতার দোহারে অবৈধ ড্রেজার পাইপ ভেঙ্গে দিল প্রশাসন 

ঢাকাকে হারিয়ে তিনে উঠে এলো কুমিল্লা

খবরের আলো রিপোর্ট :

 

 

লক্ষ্যটা খুব বড় ছিল না, ১৫৪ রানের। কিন্তু নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে এই লক্ষ্যকেও পাহাড়সম করে তুলে ঢাকা ডায়নামাইটস। শেষ পর্যন্ত তারা যেতে পেরেছে ৯ উইকেটে ১৪৬ রান পর্যন্ত।

ঢাকা ডায়নামাইটসকে ৭ রানে হারিয়ে পয়েন্ট তালিকার চার নম্বর থেকে তিনে উঠে এসেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ৮ ম্যাচে ৫ জয়ে তাদের এখন ১০ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে সমান পয়েন্ট থাকলেও রানরেটে এগিয়ে থাকা সাকিব আল হাসানের ঢাকা আছে এক নম্বরেই।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৫০ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে ঢাকা। পঞ্চম উইকেটে আন্দ্রে রাসেল আর সাকিব মিলে ৬২ রানের জুটি গড়েন। কিন্তু ২৪ বলে ২ চার আর ৫ ছক্কায় ভয়ংকর হয়ে ওঠা রাসেলকে ৪৬ রানে ফিরিয়ে দেন থিসারা পেরেরা।

এরপর দলের শেষ ভরসা সাকিবও ১৯ বলে ২০ করে শহীদ আফ্রিদির শিকার হন। পরের ওভারে শুভাগত আর নুরুল হাসানকে আউট করেন পেরেরা। ১৭ ওভারের মধ্যে স্বীকৃত সব ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে ঢাকা। লোয়ার অর্ডাররা আর দলকে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে নিয়ে যেতে পারেননি। থিসারা পেরেরা ১৪ রানে ৩টি আর শহীদ আফ্রিদি মাত্র ১৮ রান খরচায় নিয়েছেন ২টি উইকেট।

এর আগে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৫৩ রানের লড়াকু পুঁজি গড়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ২৭ রানের মধ্যে এনামুল হক বিজয় (১) আর ইমরুলকে (৭) হারিয়ে বিপদে পড়েছিল তারা। এরপর শামসুর রহমান শুভ আর তামিম ইকবাল দলকে নিয়ে যান ৭৮ রান পর্যন্ত।

তাদের ৫১ রানের জুটিটি ভাঙে তামিম ২৯ বলে ১ চার আর ২ ছক্কায় ৩৪ রান করে সাকিব আল হাসানের শিকার হলে। ঝড় তুলতে চেয়েছিলেন শহীদ আফ্রিদি। কিন্তু ৮ বলে ১৬ রান করা পাকিস্তানি অলরাউন্ডারকে সাজঘরের পথ দেখিয়ে দেন সাকিব।

ওই ওভারেই সেট ব্যাটসম্যান শামসুর রহমানকেও হজরতউল্লাহ জাজাইয়ের ক্যাচ বানান সাকিব। ৩৫ বলে ৩ চার আর ১ ছক্কায় শামসুর করেন ৪৮ রান।

১১২ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে তখন ধুঁকছে কুমিল্লা। সেখান থেকে দলকে লড়াকু পুঁজি পর্যন্ত নিয়ে যান থিসারা পেরেরা। মাত্র ১২ বলে ৩ ছক্কায় ২৬ রান করা লঙ্কান এই অলরাউন্ডার ইনিংসের শেষ ওভারের প্রথম বলেই রানআউটের কবলে পড়ায় পুঁজিটা আরও বড় হয়নি কুমিল্লার।

ঢাকা ডায়নামাইটসের পক্ষে সবচেয়ে সফল ছিলেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসানই। ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ২৪ রান খরচায় তিনি নেন ৩টি উইকেট। এছাড়া আন্দ্রে রাসেল আর রুবেল হোসেনও পেয়েছেন ২টি করে উইকেট।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com