মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

করের বোঝা ও ক্রমবর্ধমান বৈষম্য উপলক্ষ্যে সুপ্র’র সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত

খবরের আলো :

 

 

শেখ আমিনুর হোসেন, সাতক্ষীরা ব্যুরো চীফ : সুপ্র সাতক্ষীরা জেলা কমিটির আয়োজনে রবিবার সকালে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে বিদ্যমান করের বোঝা এবং ক্রমবর্ধমান বৈষম্য হ্রাসে উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। সুপ্র সাতক্ষীরার সাধারন সম্পাদক মাধব চন্দ্র’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে ধারনা পত্র ও দাবিনামা পাঠ করেন সুপ্র  সাতক্ষীরার সহ-সভাপতি অপরেশ পাল। উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, দৈনিক জনকন্ঠের স্টাফ রিপোর্টার মিজানুর রহমান, দৈনিক জনতার কালিদাশ রায়, যুগেরবার্তার আমিনুর রশিদ, সমাজের কাগজের আমিরুজ্জামন বাবু, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, জেলা সাংবাদিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক শেখ আমিনুর হোসেন, মহিলা পরিষদের জ্যোৎস্না দত্ত, সুপ্র জেলা কমিটির সদস্য শ্যামল বিশ্বাস, লুইস রানা গাইন প্রমুখ। সভায় ৭দফা দাবিনামা পেশ করা হয়, বলা হয় কর বৈষম্য কমানোর কথা থাকলেও তা এক জায়গাতেই থোমকে আছে। বিপরীতে সবচেয়ে ধনী ৫ শতাংশ মানুষের আয়ের ভাগ ছিল ২০১০ সালে ২৪ দশমিক ৬১ শতাংশ, এখন তা বড় দাঁড়িয়েছে ২৭ দশমিক ৮৯ শতাংশ। এর অর্থ, সমাজের মুষ্টিময় মানুষের কাছে অধিকহার সম্পদ পুঞ্জিভূত হচ্ছে। সিংহভাগ মানুষ উন্নয়নের সুফল থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ক্রমবর্ধমান আয়ে বৈষম্য সমস্যা মোকাবিলা করা দুরহ, কিন্তু অসম্ভব না। এ ক্ষেত্রে রাজনৈতিক ব্যক্তি দ্বয়ের সদিচ্ছার প্রয়োজন বলে আমি মনে করছি। কারণ, আয় ও সম্পদ পুনর্বণ্টন কঠিন কাজ, রাজনৈতিক নীতি পরিবর্তন ছাড়া তা অর্জন করা যায় না। করের বোঝা বর্তমান এই বৈষম্যর মূল চালিকা শক্তি হিসেবে কাজ করছে। করের বোঝা কমাতে হলে ধনিক শ্রেণীর কাছ থেকে অধিক হার কর আদায় ছাড়া কোন বিকল্প নেই। ৭ দফা দাবিগুলির মধ্যে করের আওতা বৃদ্ধি, পরাক্ষ করের উপর নির্ভরতা কমানা, ন্যায্য কর ব্যবস্থা চালু করা, কর্পোরেট করের হার বৃদ্ধি, সম্পদের সম বন্টন, করের বিপরীতে সেবা নিশ্চিত করা, কর প্রদান নাগরিকদের উৎসাহিত করা, করের টাকার সুষ্ট ব্যবহার নিশ্চিত করা অন্যতম।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com