শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০১:২৩ অপরাহ্ন

বাদ্যযন্ত্র বাজানোর কারণে আটকে গেল বিয়ে

খবরের আলো ডেস্ক :

 

সৌদি আরবে বরের বাদ্যযন্ত্র বাজানোর অপরাধে আটকে গেছে বিয়ে! কনের পরিবারের দৃষ্টিতে বাদ্যযন্ত্র বাজানো শোভন নয়। শেষ পর্যন্ত বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ালেও আদালতও কনের পরিবারের পক্ষে রায় দিয়েছে।

এতে করে কনে বেচারিও পছন্দের মানুষটিকে জীবনসঙ্গী করতে পারলেন না। ৩৮ বছর বয়সী ওই অজ্ঞাত সৌদি নারী পেশায় একজন ব্যাংক ম্যানেজার। বিয়ের জন্য শিক্ষক পাত্রকে বেছে নেন। কিন্তু এই বিয়েতে বাদ সাধে মেয়ের পরিবার।

মেয়ের স্বজনদের মতে, বাদ্যযন্ত্র বাজানোর কারণে ছেলে এই বিয়ের জন্য ধর্মীয় দিক থেকে অযোগ্য।

বিয়েতে পরিবারের মত না পেয়ে ওই নারী আদালতের দ্বারস্থ হন। কিন্তু আইনি লড়াইয়েও হেরে যান তিনি। পরিবারের মতের পক্ষেই রায় দেন আদালত।

আদালতে ওই নারীর ভাইয়ের পেশ করা তথ্যপ্রমাণে দেখা যায়, হবু পাত্র একটি অনুষ্ঠানে বাদ্যযন্ত্র বাজিয়েছিলেন।

এদিকে ছেলের আইনজীবীর দাবি, তার মক্কেলকে আদালতে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেয়া হয়নি। নিম্ন আদালতের রায় অনুমোদন পেয়েছে আপিল আদালতে। অর্থাৎ এ বিয়ে আর হচ্ছে না।

আদালত রায়ে বলেছেন, যেহেতু ছেলে বাদ্যযন্ত্র বাজান, তাই ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে তিনি কনের উপযুক্ত নন।

নারীর ভাষ্য, তার পছন্দের পাত্রের ভাবমূর্তি ভালো। তিনি খুবই ধার্মিক।

পরিবার ও আদালতের সিদ্ধান্তে হতাশ হলেও এখানেই থামছেন না ওই নারী। তার ভাষ্য, এ ব্যাপারে তিনি দেশের সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ চাইবেন। তিনি রাজকীয় আদালতে যাবেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com