সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৭:০৬ অপরাহ্ন

অভিযানের পরও পুরান ঢাকায় রাসায়নিক গুদাম থাকা দুঃখজনক : প্রধানমন্ত্রী

খবরের আলো রিপোর্ট :

 

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢামেকে পৌঁছান। এ সময় তিনি হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন দগ্ধ ও আহতদের খোঁজখবর নেন।

প্রসঙ্গত, বুধবার রাত ১০টার পর রাজধানীর চকবাজার এলাকার নন্দকুমার দত্ত সড়কের চুরিহাট্টা মসজিদ গলির রাজ্জাক ভবনে আগুন লাগে। রাত ১টা ৫ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। পরে আগুন ভয়াবহ আকারে আশপাশের ৫টি বিল্ডিংয়ে ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের ৩২টি ইউনিট রাত ৩টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বার বার অভিযানের পর রাজধানীর পুরান ঢাকায় রাসায়নিক গুদাম থাকা দুঃখজনক। রাসায়নিক গুদাম সরাতে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। ঘনবসতির এলাকায় যেন আর কেমিক্যাল না থাকে সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শনিবার পুরান ঢাকার চকবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ ও আহতদের দেখতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে গিয়ে তিনি এ সব বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢামেকে পৌঁছান। এ সময় তিনি হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন দগ্ধ ও আহতদের খোঁজখবর নেন।

প্রসঙ্গত, বুধবার রাত ১০টার পর রাজধানীর চকবাজার এলাকার নন্দকুমার দত্ত সড়কের চুরিহাট্টা মসজিদ গলির রাজ্জাক ভবনে আগুন লাগে। রাত ১টা ৫ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। পরে আগুন ভয়াবহ আকারে আশপাশের ৫টি বিল্ডিংয়ে ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের ৩২টি ইউনিট রাত ৩টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। অগ্নিকাণ্ডে ৮১ জন নিহত হন।

ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে ৭০টি মৃতদেহ উদ্ধার করে। এ ছাড়া আরো ১১টি মৃতদেহ বিভিন্নভাবে পৌঁছায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক)। এর মধ্যে শনাক্ত হওয়া ৪৫ জনের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত দগ্ধ হন। তাদের ঢাকা মেডিক্যালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com