বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৩:৩৪ অপরাহ্ন

কলকাতায় কদর কমেছে বাংলাদেশিদের

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

 

গেল কয়েক বছরে দুদিন পরপর খবর আসতো, অমুক নায়ক নাম লিখিয়েছেন কলকাতার তমুক সিনেমায়। কিন্তু এখন কেমন যেন সেই খবর খুব একটা আসে না। কয়েক বছর ধরে নুসরাত ফারিয়া, মাহিয়া মাহি, বিদ্যা সিনহা মিম কলকাতায় কাজ করলেও বর্তমানে সেখানে তাদের কোন কাজ নেই। বেশ দাপটের সঙ্গেই অভিনয় করছিলেন শাকিব খান। তারও নতুন কোন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হওয়ার খবর নেই।

জয়া আহসানের কথা ভিন্ন। তিনি বেশ শক্ত ভিত গড়েছেন সেখানে। সেখানকার কলাকুশলীদের সঙ্গে তার নিয়মিত উঠাবসা। তবুও তার হাতে নতুন কোন কাজ নেই। তাহলে কি কলকাতার বাজারে বাংলাদেশিদের কদর কমছে?

কলকাতার প্রযোজকদের বাংলাদেশ থেকে শিল্পী নেওয়ার মূল কারণই হলো, ছবিটা এখানে চললে কিছু টাকা আসবে। এসব ছবির বাজেটও বড়। সে জন্য উত্সবগুলো ধরার চেষ্টা থাকে। কিন্তু বাংলাদেশে আইন করা হলো, উৎসবে বিদেশি ছবি চালানো যাবে না। তাইতো ক্রমে কলকাতার প্রযোজকেরা এ দেশের শিল্পীদের নিয়ে ছবি করতে আর আগ্রহী হচ্ছেন না।

প্রশ্ন হলো বাংলাদেশি শিল্পী কি শুধু ব্যবসায়ীক খাতিরেই নেওয়া হয়? এদেশের শিল্পীদের কোন শিল্পমান নেই?

শিল্পমানের প্রশ্নে গেলে জয়ার মত আরও অনেকেই হাটছে সে পথে। আরেফিন শুভর ‘আহারে’ সিনেমাটি মুক্তি পেল কলকাতায়। সিনেমাটি বাংলাদেশেও মুক্তি দেওয়ার কথা রয়েছে। জ্যোতিকা জ্যোতিও সেখানকার হোম প্রডাকশনে কাজ করছেন।

বাংলাদেশের বিদ্যা সিনহা মিম বলেন, দুই দেশ থেকে শিল্পী নিয়ে কাজ করার কারণ, যাতে দুই দেশেই ছবিটি চলে। বড় বাজেটের ছবিগুলো উৎসবের দিনে মুক্তির পরিকল্পনা থাকে প্রযোজকদের। কিন্তু বাংলাদেশে নতুন নিয়মে সেই সুযোগ নেই। সুতরাং কলকাতার প্রযোজকদের বাংলাদেশি শিল্পী নিয়ে তো লাভ নেই।

এদিকে যৌথ প্রযোজনার ছবির নতুন নীতিমালা তৈরি হওয়ার পর কোন ছবি নির্মিত হয়নি। ‘প্রেম আমার ২’ জাজের একটি সিনেমা গতসপ্তাহে মুক্তি পেয়েছে। এই সিনেমাটি জাজ রাজের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনা করেছেন। কিন্তু তা নিয়ে চলছে জলঘোলার অপেক্ষা।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com