বুধবার, ১৪ অক্টোবর ২০২০, ১০:২৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

‘শান্তিপূর্ণ ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সরকারকে বিদায় দিতে হবে’

খবরের আলো রিপোর্ট :

 

 

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, বিএনপির আজকে এই পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণের একটি মাত্র উপায়, শান্তিপূর্ণ ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় এই সরকারকে বিদায় দিতে হবে, এই সরকারকে বিদায় নিতে হবে। আর এই সরকারকে বিদায় দিতে হলে যে আন্দোলনের কথা আপনারা বলেছেন, সেই আন্দোলন করতে হবে ঠাণ্ডা মাথায়। বাস্তবধর্মী পরিকল্পনার ভিত্তিতে।

আজ বুধবার রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির স্বাধীনতা হলে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মঈন খান বলেন, এখন বাংলাদেশের ভ্যালুজ সিস্টেম হয়েছে বিত্ত, বৈভব, সম্পদ। এখানে মানবাধিকার নেই, গণতন্ত্র নেই, আইনের শাসন নেই। এখানে দৈনন্দিন কার্যক্রম হচ্ছে খুন, রাহাজানি। এখানে দৈনন্দিন কর্মকাণ্ড হচ্ছে নারী এমনকি অপ্রাপ্ত বয়স্ক নারীদের সম্ভ্রমহানি। এই বাংলাদেশের জন্য কি তারা (মুক্তিযোদ্ধারা) জীবন দিয়েছিলেন? এ প্রশ্নের উত্তর আজ আওয়ামী লীগকে দিতে হবে।

তিনি বলেন, মানুষকে তার অধিকার থেকে বঞ্চিত করে কেউ চিরদিন ক্ষমতায় থাকতে পারে না, পারবে না। পৃথিবীর ইতহাস সাক্ষ্য দেয়, কেউ টিকে থাকতে পারেনি। গণতন্ত্রের জন্য সাধারণ মানুষ জীবন দিয়েছিল যে কারণে, সেটা হলো পাকিস্তানি অবকাঠামোর মধ্যে কোনো গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র থাকতে পারে না। সেই কারণে স্বাধীনতা যুদ্ধ হয়েছিল।

মঈন খান বলেন, বর্তমান রাজনৈতিক পেক্ষাপটে বেগম জিয়াকে রাজনীতিকভাবে মুক্ত করে আগামীতে তার নেতৃত্বে একটি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে এ দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র কায়েম করতে হবে।

তিনি বলেন, সময় কোনোদিন নিদিষ্ট স্থানে স্থীর থাকে না। সময় অবিরত চলমান। আপনারা যদি বলেন- আশির দশকের আন্দোলন আর ২০২০ সালের আন্দোলন এক আমি মনে করি এটা ভুল। আপনাদের উপলব্ধি করেতে হবে আজকে আন্দোলনের সাথে উনসত্তরের আন্দোলন, ৫২’র ভাষা আন্দোলন এক নয়। এই সরকারকে কাবু করতে হলে একটা ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করতে হবে। আর এই ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের সূচনা আমরা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মাধ্যমে শুরু করেছি।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নেসার রহমাতুল্লাহ, সদ্য নির্বাচিত সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মো. মোশাররফ হোসেন, ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক শাহ মো. নেছারুল হক, জাসাসের সহ-সভাপতি শাহরিয়া ইসলাম শায়লা, ঢাকা মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ উদ্দিন প্রমুখ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com