শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০৫:২৯ অপরাহ্ন

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে‘জ্বিনেরবাদশা’ বিকাশ প্রতারক চক্রের মূলহোতাসহ তিন প্রতারককে আটক

খবরের আলো :

স্টাফ রিপোর্টার নারায়ণগঞ্জ :নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ‘জ্বিনের বাদশা’ পরিচয়ধারী বিকাশ প্রতারক চক্রের মূল হোতাসহ তিন পেশাদার প্রতারককে আটক করেছে র‌্যাব-১১ এর সদস্যর বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে উপজেলার বান্টিবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত চারটি আধুনিক মোবাইল ফোন। বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় র‌্যাব-১১ এর ব্যাটালিয়ান অধিনায়ক (সিও) লে. কর্নেল কাজী শামশ উদ্দিন এক প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানান। এরা হলেন-প্রতারক চক্রের মূল হোতা জ্বিনের বাদশা পরিচয়ধারী সৈয়দ আকতার হোসেন লিটন (৪৫), মুকলেসুর রহমান ওরফে দয়াল বাবা (৫২) ও দুলাল ওরফে দুলাল পাগলা (৩২)।প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব-১১ ব্যাটালিয়ান অধিনায়ক (সিও) লে. কর্ণেল কাজী শামশ উদ্দিন জানান, এই সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র মোবাইল ফোনের ভুয়া সিম ব্যবহার করে দেশের প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী ও উচ্চপদস্থ চাকরিজীবীদের কাছে নিজেদেরকে কখনো ঢাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী, আবার কখনো ‘জ্বিনের বাদশা’ পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজি করে আসছিলেন।  গত ২৫ ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার থানা এলাকার ব্যবসায়ী মমতাজ হাসান র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক বরাবর এ ব্যাপারে একটি লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগে বলা হয়, একটি অপরিচিত মোবাইল নাম্বার (০১৮৮০৮৭৭০৮৬) থেকে ‘দেশের শীর্ষ-সন্ত্রাসী মিরপুরের শাহাদাত’ পরিচয় দিয়ে এক ব্যক্তি তাকে হুমকি দিয়ে চাঁদা দাবি করে।
এ অভিযোগের সত্যতা যাচাই ও অনুসন্ধানে জানা যায়, ওই পরিচয়ে একই ব্যক্তি একাধিক সিম ব্যবহার করে দেশের বহু প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী, সরকারি ও বেসরকারি উচ্চপদস্থ চাকরিজীবীদের মোবাইলে হুমকি দিয়ে চাঁদা আদায় করেছে। অনেকে নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তার বিষয় বিবেচনা করে বিকাশে চাঁদা দিয়েছে। অনেকে হুমকিতে ভয় পেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। আবার অনেকে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় সাধারণ ডাইরিও করেছে।
এর মধ্যে এই প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় ৪টি জিডি করা হয়। র‌্যাব-১১ এর একটি আভিযানিক দল দীর্ঘদিন অনুসন্ধান ও গোয়েন্দা নজরদারির মাধ্যমে এই প্রতারক চক্রকে শনাক্ত করতে সক্ষম হয়। বুধবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই চক্রটির অবস্থান নিশ্চিত হয়ে র‌্যাব আড়াইহাজার উপজেলার বান্টিবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তিনজনকে আটক করে। র‌্যাব-১১ সিও আরো জানান, আটকদের জিজ্ঞাসাবাদে ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা গেছে, এই প্রতারক চক্রের মূলহোতা মাদারীপুর জেলার রাজৈর থানার আমগ্রামের সৈয়দ আকতার হোসেন লিটন। প্রতারণাই তার মূল পেশা। আর মাজার ভক্তি তার নেশা। প্রায় এক যুগ আগে গাজীপুরের কোনাবাড়ির এক মাজারে ফকির মোখলেসুর রহমানের সঙ্গে তার পরিচয়। লিটন ভক্তি করে ফকির মোখলেসুর রহমানকে ‘দয়াল বাবা’ উপাধি দেয়। দয়াল বাবার মুরিদ হিসেবে দুলাল পাগলার সঙ্গে লিটনের পরিচয় হয়। দীর্ঘদিন ধরে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে লিটন মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছে। ‘জ্বিনের বাদশা’ হয়ে প্রতারণা করার অপরাধে একবার গ্রেফতারও হয়েছিল। তারপরেও তার প্রতারণা থেমে থাকেনি। র‌্যাব-১১ এর ব্যাটালিয়ান অধিনায়ক (সিও) লে. কর্ণেল কাজী শামশ উদ্দিন জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে নারায়গণঞ্জের আড়াইহাজার থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com