শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ০৩:৩৮ অপরাহ্ন

সিরিয়ার শরণার্থী শিবির থেকে শিশু সন্তান নিয়ে লাপাত্তা শামীমা

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

 

আইএস জঙ্গি বধূ শামীমা বেগম প্রাণ রক্ষায় তার দুই সপ্তাহের শিশু সন্তান জেররাহকে নিয়ে শরাণার্থী শিবির থেকে পালিয়েছেন। তাকে হত্যার পর তার মাথার মূল্য নির্ধারণ করার পর শামীমা আত্মগোপন করলেন। ব্রিটেনের পূর্ব লন্ডনের বেথনাল গ্রিন এলাকার মেয়ে শামীমা আইএস জঙ্গিদের সঙ্গে তথাকথিত জিহাদে যোগ দিতে সিরিয়া চলে যান। তার বয়স এখন ১৯ বছর এবং ব্রিটেনে ফিরে আসতে চাইলেও দেশটি তাকে ফেরত নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। এমনকি তার নাগরিকত্ব কেড়ে নিয়েছে ব্রিটেন। মিরর/দি সান

সর্বশেষ সিরিয়ার উত্তরাঞ্চল এলাকা আল-হল ক্যাম্প থেকে নিখোঁজ হয়ে পড়েন শামীমা। শামীমা নিজের ভুল স্বীকার করায় অন্যান্য জঙ্গির স্ত্রীরা তার ওপর ক্ষিপ্ত এবং তাকে হত্যা করতে চাচ্ছে। শামীমার আইনজীবী তাসনিম আকুঞ্জি শামীমার আত্মগোপনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শামীমা তার ও তার সন্তানের নিরাপত্তার জন্যে আত্মগোপনে বাধ্য হয়েছে। তবে সে কোথায় আচে তা জানিনা। আমার ধারণা সে একের পর এক স্থান পরিবর্তন করছে।

এদিকে দি সান এক প্রতিবেদনে বলেছে, সিরিয়ার ওই শরণার্থী শিবিরে শামীমাকে সরাসরি হুমকি দেয়া হয়েছে। এর পর সে ভীত হয়ে পড়ে। নিজে ও নিজের সন্তানকে বাঁচাতেই সে আত্মগোপনের পথ বেছে নেয়। এছাড়া আইএস জঙ্গিদের অনেক গোপন তৎপরতা সম্পর্কে সে খোলাখুলি বক্তব্য রেখেছে। আইএস জঙ্গিদের অন্যান্য বধূ বলছেন, দুর্ভাগ্যের জন্যে শামীমার নিজের কপালকেই দোষ দেয়া উচিত, অন্যকে নয়।

২০১৫ সালে এক ডাচ নওমুসলিম ইয়াগো রিয়েদজিকের সঙ্গে ১৫ বছর বয়সে শামীমা ব্রিটেন থেকে পালিয়ে সিরিয়ার রাকায় চলে যায় এবং উভয়ে বিয়ে করে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com