মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

সিঙ্গাপুরের পথে ওবায়দুল কাদের

খবরের আলো রিপোর্ট :

 

 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুরে নেয়া হচ্ছে। সোমবার কিকেল ৩টা ২০ টিনিটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে হযরত শাহ্‌জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নেওয়া হয়।

উপমহাদেশের বিখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী শেঠির পরামর্শে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ড।

মেডিকেল বোর্ডের সদস্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার‌্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া সোমবার দুপুর আড়াইটার পর এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন। এর আগে ওবায়দুল কাদেরের সবশেষ শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেন ডা. দেবী শেঠিসহ মেডিকেল বোর্ড। এসময় সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতাল থেকে ঢাকায় আসা তিন সদস্যের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দলও ছিলেন।

ডা. দেবী শেঠি ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বলে জানান ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। তিনি জানান, ওবায়দুর কাদেরের অবস্থা উন্নতির দিকে। এই মুহূর্তে তাকে বিদেশ নিয়ে উন্নত চিকিৎসা দিতে কোনো ঝুঁকি নেই।ডা. কনক কান্তি জানান, ওবায়দুল কাদেরকে মাউন্ট এলিজাবেথে নেয়া হবে। এক ঘন্টার মধ্যে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে সেখানে নেয়া হবে।

এর আগে  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের অবস্থা দেখতে ঢাকায় এসেছেন ভারতের প্রখ্যাত কার্ডিয়াক সার্জন দেবী প্রসাদ শেঠি । দুপুর দেড়টায় বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে পৌঁছান দেবী শেঠি। চিকিৎসকরা সেখান থেকে তাকে ওবায়দুল কাদেরের কাছে নিয়ে যান। সেখানে ওবায়দুল কাদেরের প্রাথমিক কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা করার শেষে তিনি কাদেরের চিকিৎসা বিষয়ে মেডিকেল বোর্ড মিটিংয়ে যোগ দিয়েছেন।

এর আগে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের প্রিভেনটিভ অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন কার্ডিওলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদ সোমবার দুপুরে হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে ডা. শেঠিকে স্বাগত জানান।

অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক বলেন, ওবায়দুল কাদেরের সব দেখে কার্ডিয়াক সার্জন হিসেবে তিনি তার মতামত জানাবেন। ভারতের নারায়ণ ইন্সটিটিউট অব কার্ডিয়াক সায়েন্সেসের প্রতিষ্ঠাতা ডা. দেবী শেঠির ১৫ হাজারের বেশি অস্ত্রোপচার করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। স্বল্প খরচে হৃদরোগের চিকিৎসা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়ে আলোচিত এই চিকিৎসককে ২০১২ সালে পদ্মভূষণ খেতাবে ভূষিত করে ভারত সরকার।

রোববার সকাল থেকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের করোনারি কেয়ার ইউনিটে ভর্তি আছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদের। তাকে কৃত্রিমভাবে শ্বাসপ্রশ্বাস দেওয়া হচ্ছে। এনজিওগ্রামে তার হৃদপিণ্ডের রক্তনালীতে তিনটি ব্লক ধরা পড়লে স্টেন্টিংয়ের মাধ্যমে একটি অপসারণ করেন চিকিৎসকরা। তার অবস্থার কিছুুটা উন্নতি হলেও এখনও সঙ্কট কাটেনি বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com