সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০১:০০ অপরাহ্ন

সংসার বাঁচাতে ৬২ বছর ধরে স্বামীর বোবা-কালার অভিনয়!

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কানেটিকাট রাজ্যের ওয়াটারবুরি শহরের ৮৪ বছরের বৃদ্ধ ব্যারি ডসন। ৬২ বছর আগে বিয়ে করেন ডরথিকে। এখন ডরথির বয়স ৮০ বছর।৬২ বছরের সুখী দাম্পত্য জীবন তাদের। তারা ৬ সন্তানের জনক-জননী। বৃদ্ধ ওই দম্পতির নাতি-নাতনি রয়েছেন ১৩ জন। সন্তান, নাতি-নাতনিরাও জানেন তাদের বাবা ও দাদু বোবা-কালা।

এখন শেষ জীবনে এসে ডিভোর্স চাইছেন বৃদ্ধা ডরথি। কারণ বিয়ের পর থেকে অভিনয় করে যাচ্ছেন স্বামী ডসন। ডিভোর্সের জন্য তিনি আদালতের দারস্থ হয়েছেন।

আসলে বাচাল স্ত্রীর কাছ থেকে বাঁচতে ৬২ বছর ধরে বোবা ও কালা সেজে রয়েছেন ব্যারি ডসন। বিয়ের পর তিনি স্ত্রীর সামনে কোনো কথা বলেননি। এমনকি কানে না শোনার অভিনয় করে গেছেন। সম্প্রতি একটি ইউটিউবের কল্যাণে ডরথি জানতে পারেন তার স্বামী ডসন একজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষ। তিনি কথা বলতে ও শুনতে পারেন।

ডরথির অভিযোগ, বিয়ের ৬২ বছর ধরে তার স্বামী ডসন কোনো কথা বলেননি। এমনকি তিনি কোনো কথা শুনেননি। স্বামীর সঙ্গে বসবাস করতে তিনি ইসারার ভাষাও রপ্ত করেছেন। তারপরও তিনি সঠিক যোগাযোগ রক্ষা করতে পারেননি।

ডরথি বলেন, ‘আমি বাসায় থাকলে ব্যারি ডসন বোবা-কালার অভিনয় করতেন। একটি ইউটিউব দেখে আমি এ বিষয়টি জানতে পারি। ইউটিউবে দেখা যায়, রাতে একটি বারে বন্ধুদের নিয়ে বাজনার সঙ্গে সঙ্গে ব্যারি ডসন গানও গাচ্ছেন। তিনি একটি চ্যারিটি সভায়ও সবার সঙ্গে কমিউনিকেট করেছিলেন। এরপরই আমি সব বুঝতে পারি।’ এদিকে ব্যারি ডসনের আইনজীবী রবার্ট সানচেজ জানান, বোবা-কালা সেজে থাকার কোনো খারাপ উদ্দেশ্য ছিল না। বরং সংসার টিকিয়ে রাখতে তিনি (ব্যারি) ৬২ বছর ধরে স্ত্রীর সামনে বোবা-কালার অভিনয় করে গেছেন।

তিনি বলেন, ‘আমার ক্লায়েন্ট ব্যারি ডসন স্বল্পভাষী। অন্যদিকে ডরথি বাচাল টাইপের। ব্যারি যদি বোবা-কালা সেজে না থাকত তাহলে ৬২ বছর আগেই তাদের ডিভোর্স হয়ে যেত। বোবা-কালা সেজে থাকায় তারা ৬২ বছর ধরে সংসার করতে পেরেছেন।’

সম্প্রতি ব্যারি-ডরথি দম্পতি আদালতের মুখোমুখি হয়েছেন। এখন ডরথি এত দিন ধরে যে মানসিক চাপ ও ভারবহন করে আসছে তার আর্থিক ক্ষতিপূরণ দাবি করছেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com