বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:১১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
অন্ন বস্ত্রের সমাধানের পর গৃহহীনদের মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা -তথ্যমন্ত্রী   বিত্ত কখনো রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনা -তথ্যমন্ত্রী বাইডেনের শপথের সব আয়োজন সম্পন্ন, নজিরবিহীন নিরাপত্তা শিগগিরই ভ্যাকসিন বিতরণ কার্যক্রম শুরু : সংসদে প্রধানমন্ত্রী সিরাজগঞ্জে অবৈধ ৩টি ইটভাটায়  ভ্রাম্যমান আদালতে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মকর্তা পরিষদের নির্বাচন ১৪ জানুয়ারি বেলকুচিতে আলোচিত পিতা-পুত্র হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আটক স্পেনে তীব্র তুষারপাতে জনজীবন অচল: যান চলাচল বন্ধ সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের শিক্ষিকা শিউলী মল্লিকা গ্রেফতার দোহারে অবৈধ ড্রেজার পাইপ ভেঙ্গে দিল প্রশাসন 

মোদি বড়লোক ও চোরদের চৌকিদার: রাহুল

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সাধারণ মানুষদের নয় বরং অনিল আম্বানি-নীরব মোদীর মতো মতো ধনী, দুর্নীতিবাজ, ও চোরদের চৌকিদার। এমন মন্তব্য করেছেন ভারতের কংগ্রেস দলীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী। পশ্চিমবঙ্গের মালদহে লোকসভা নির্বাচন সামনে রেখে আয়োজিত জনসভায় এই কথা বলেন তিনি। উল্লেখ্য লোকসভা নির্বাচনে জিততে চৌকিদার ক্যাম্পেইন শুরু করেছেন বিজেপি।

রাহুল বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী সারা দিন মিথ্যা কথা বলেন। প্রথমে বললেন আমি চৌকিদার, প্রধানমন্ত্রী নই। এখন বলছেন দেশের সবাই চৌকিদার। মোদীজি, সবার বাড়িতে চৌকিদার থাকে না। আপনি অনীল আম্বানি, মেহুল চোকসি আর নীরব মোদীর মতো বড়লোক ও চোরদের চৌকিদার। দেশ ভক্তির কথা বলেন আর ভারতের ৩০ হাজার কোটি টাকা অনীল আম্বানিদের টাকা পাইয়ে দেন।’

রাহুল সমালোচনা করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও। বলেন, ‘মমতাজি বাংলায় কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেননি। কৃষকদের জন্য কিছু করেননি। একজন ব্যক্তির জন্য সরকার পরিচালিত হয়। আর অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী আচমকা একদিন রাতে ভাবলেন তাঁর ৫০০ এবং হাজার টাকার নোট পছন্দ নয়। তাই বাতিল করে দিলেন। একবার আমাদের সরকার আসুক দেখুন কী হয়! সরকারি হাসপাতাল থেকে শুরু করে সরকারি স্কুল হবে।’

দীর্ঘদিন ধরে লোকসভার মালদহের আসনে জিতে আসছেন কংগ্রেস প্রার্থীরা। তবে এবার একজন দল ছেড়েছেন মৌসুম বেনজির দূর। গনি খান চৌধুরির পরিবারের এই সদস্য পদত্যাগ করায় ধাক্কা খেয়েছে কংগ্রেস। এমতাবস্থায় ওই পরিবারের সদস্য ইশা খান চৌধুরীকে প্রার্থী করেছে কংগ্রেস।

মালদহে এবার চতুর্মুখী লড়াই হচ্ছে। উত্তরে তৃণমূলের মৌসুমের সঙ্গে লড়াই হচ্ছে বিজেপির খগেন মুর্মু, কংগ্রেসের ইশা খান চৌধুরি এবং বাম প্রার্থীর। রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক বিশ্বনাথ চক্রবর্তী মনে করেন চতুর্মুখী লড়াই হলে ভোট যেভাবে ভাগ হবে তাতে মুসলমান সম্প্রদায়ের মানুষের প্রভাব বেশি এমন কেন্দ্রে সুবিধা পাবে তৃণমূল।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com