বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
অন্ন বস্ত্রের সমাধানের পর গৃহহীনদের মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা -তথ্যমন্ত্রী   বিত্ত কখনো রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনা -তথ্যমন্ত্রী বাইডেনের শপথের সব আয়োজন সম্পন্ন, নজিরবিহীন নিরাপত্তা শিগগিরই ভ্যাকসিন বিতরণ কার্যক্রম শুরু : সংসদে প্রধানমন্ত্রী সিরাজগঞ্জে অবৈধ ৩টি ইটভাটায়  ভ্রাম্যমান আদালতে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মকর্তা পরিষদের নির্বাচন ১৪ জানুয়ারি বেলকুচিতে আলোচিত পিতা-পুত্র হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আটক স্পেনে তীব্র তুষারপাতে জনজীবন অচল: যান চলাচল বন্ধ সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের শিক্ষিকা শিউলী মল্লিকা গ্রেফতার দোহারে অবৈধ ড্রেজার পাইপ ভেঙ্গে দিল প্রশাসন 

মালদ্বীপে ক্ষমতায় ফিরছেন মোহাম্মদ নাশিদ

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

 

মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদ নির্বাসন থেকে দেশে ফেরার মাত্র পাঁচ মাসের মাথায় ভূমিধস বিজয়ের মাধ্যমে ক্ষমতায় ফিরছেন। শনিবার অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তার দল মালদ্বীভিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টি (এমডিপি) ৮৭আসন বিশিষ্ট পার্লামেন্টের দুই তৃতীয়াংশ আসনে জয় লাভ করেছেন।

রাজধানী মালেতে রোববার সমর্থকদের উদ্দেশ্যে নাশিদ বলেন, ‘সরকারে শান্তি ও স্থিতিশীলতা আনাই আমাদের প্রধান কর্তব্য।’

নাশিদ (৫১) দেশটিতে ব্যাপক সংস্কার ও সরকারের দুর্নীতি বন্ধ এবং স্থিতিশীলতা ও গণতন্ত্রের এক নতুন যুগের সূচনার অঙ্গীকার করেন।

নির্বাচনে এমডিপি প্রায় ৬০ আসনে জয় পেয়েছে। যদিও স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলোতে বলা হচ্ছে, নাশিদের দল ৬৮টি আসনে জয় পাবে। আনুষ্ঠানিক ফলাফল পেতে কয়েকদিন সময় লাগবে বলে জানা গেছে।

নির্বাচন কর্মকর্তারা বলছেন, নির্বাচনে ৮০ শতাংশ ভোটার ভোট দিয়েছে। যা সেপ্টেম্বরের নির্বাচনের চেয়ে কম। সেপ্টেম্বরের নির্বাচনে ৮৯ শতাংশ ভোটার ভোট দেয়। নির্বাচন কমিশনার আহমেদ শরিফ সাংবদিকদের বলেন, নির্বাচনে কোন অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

নাশিদ ২০১৫ সালে ১৩ বছরের কারাদন্ডে দন্ডিত হন। এর এক বছর পর চিকিৎসার জন্য তিনি যুক্তরাজ্যে যাওয়ার অনুমতি পান।

গত বছর সেপ্টেম্বরে নাশিদের তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিনকে হারিয়ে তার রাজনৈতিক সহযোগী ইব্রাহিম মোহাম্মদ সলিহ প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। এরপর দেশটির সুপ্রিম কোর্ট নাশিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেয়।
গত বছরের নভেম্বর পর্যন্ত নাশিদ নির্বাসনে ছিলেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com