শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:৩৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাইডেনের শপথের সব আয়োজন সম্পন্ন, নজিরবিহীন নিরাপত্তা শিগগিরই ভ্যাকসিন বিতরণ কার্যক্রম শুরু : সংসদে প্রধানমন্ত্রী সিরাজগঞ্জে অবৈধ ৩টি ইটভাটায়  ভ্রাম্যমান আদালতে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মকর্তা পরিষদের নির্বাচন ১৪ জানুয়ারি বেলকুচিতে আলোচিত পিতা-পুত্র হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আটক স্পেনে তীব্র তুষারপাতে জনজীবন অচল: যান চলাচল বন্ধ সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের শিক্ষিকা শিউলী মল্লিকা গ্রেফতার দোহারে অবৈধ ড্রেজার পাইপ ভেঙ্গে দিল প্রশাসন  সালমান এফ রহমানের দোহার – নবাবগঞ্জে উন্মুক্ত হলো ওয়াজ মাহফিল বদলগাছীর কোলা ইউনিয়ন কে মডেল ইউনিয়ন গড়ার প্রত্যয়ে কাজ করছেন চেয়ারম্যান স্বপন

প্রধান শিক্ষকের অপসারনসহ ম্যানেজিং কমিটি বাতিলের দাবী

খবরের আলো :

 

হাবিবুর রহমান মাসুদ,পটুয়াখালী প্রতিনিধি : ছোট ভাইকে করেছেন বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি। এক্ষেত্রে মানা হয়নি কোন নিয়ম কানুন। বিদ্যালয় সংশ্লিস্ট সকল আর্থিক লেনদেনে দেয়া হয়না পাকা রশিদ। অনিয়ম, দুর্নীতির মাধ্যমে করছেন প্রতিষ্ঠনের অর্থ আত্মসাৎ। ক্ষমতা দাপটে সহকর্মীসহ শিক্ষার্থীর অভিভাবকদের সাথে করছেন ধারাবাহিক অসদাচারন। এমন অভিযোগে পটুয়াখালীর গলাচিপা উদয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ বাতিলসহ ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমানের অপসারনের দাবীতে মানববন্ধন ও বিভোক্ষ কর্মসূচী পালন করেছে বিদ্যালয়ের অবিভাবকসহ শিক্ষানুরাগী ও এলাকাবাসী। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় বিদ্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর অবিভাবক আলমগীর হোসেন, বেল্লাল হাওলাদার, মোশারেফ হোসেন।
এ সময় বক্তারা অভিযোগ করেন, ০২ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে মিজানুর রহমান ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব নেয়ার পর ক্ষমতার দাপটে একের পর এক দুর্নীতি করে যাচ্ছেন। কৌশলে নিয়মিত কমিটির সকল সদস্যকে পদত্যাগে বাধ্য করেছেন। শিক্ষক, অভিভাবকসহ শিক্ষানুরাগীদের পাশ কাটিয়ে ভোটার তালিকা প্রনয়ন না করে তফছিল ঘোষনা ছাড়াই ছোট ভাই কালাম শরীফকে ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি করে একটি পকেট কমিটি গঠন করেছেন। ছোট ভাই সভাপতি হওয়ায় আর্থিক কর্মকান্ডের জন্য কারো কাছে জবাবদিহিতা না থাকায় শিক্ষার্থী ভর্তি, স্কুল পরীক্ষা, বোর্ড পরীক্ষা, নিবন্ধন, ফরম পূরণ, সনদ বিতরণ, প্রশংসাপত্র বিতরণের রশিদ প্রদান না করে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান নিজেই নগদ টাকা গ্রহণ করছেন। বিভিন্ন প্রকাশনীর কাছ থেকে আর্থিক সুবিধা নিয়ে নির্দিষ্ট বই শিক্ষার্থীদের পড়তে বাধ্য করছেন।
বক্তারা আরো বলেন, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান তার নৈতিকতা হারিয়েছেন। এসব অভিযোগ তদন্ত করে দোষী প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়াসহ অবিলম্বে নতুন প্রধান শিক্ষক নিয়োগ ও ম্যানেজিং কমিটি বাতিলের দাবী জানান। এবিষয়ে জানতে চাইলে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান জানান, তার বিরুদ্ধে আনীত সব অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। একটি কুচক্রী মহল তাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এসব করছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com