বুধবার, ১৩ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:১১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বেলকুচিতে আলোচিত পিতা-পুত্র হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আটক স্পেনে তীব্র তুষারপাতে জনজীবন অচল: যান চলাচল বন্ধ সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের শিক্ষিকা শিউলী মল্লিকা গ্রেফতার দোহারে অবৈধ ড্রেজার পাইপ ভেঙ্গে দিল প্রশাসন  সালমান এফ রহমানের দোহার – নবাবগঞ্জে উন্মুক্ত হলো ওয়াজ মাহফিল বদলগাছীর কোলা ইউনিয়ন কে মডেল ইউনিয়ন গড়ার প্রত্যয়ে কাজ করছেন চেয়ারম্যান স্বপন নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন রাজধানীর মিরপুরে নতুন বছর উদযাপনের বিশেষ আয়োজন এবার ঠাকুরগাঁওয়ে ইট দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ভাঙচুর নির্বাচন আসলে অভিযোগের বাক্স খুলে বসা বিএনপির অভ্যাসগত স্বভাব : তথ্যমন্ত্রী

সাতক্ষীরার গৃহবধূ মৌ স্বামীর পৈত্রিক সম্পত্তি ফেরত চাই

খবরের আলো :
শেখ আমিনুর হোসেন, সাতক্ষীরা ব্যুরো চীফ: আমার স্বামী ফারহাদ হোসেনের পৈতৃক সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল করার চেষ্টা করছেন শাহানারা খাতুন। তিনি যেখানে জমি কিনেছেন বলে জানিয়েছেন সেখানে জমিদাতা এলমানছারের জমি মাত্র আধা শতক। সে জমি সরকারি রাস্তার মধ্যে চলে গেছে।
সোববার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ কথা জানান শহরের পলাশপোলের ফারহাদ হোসেনের স্ত্রী মাসকুরা পারভিন মৌ। এ সময় তার সাথে ছিলেন তার চাচা রাজিবুল ইসলাম।
সংবাদ সম্মেলনে মাসকুরা পারভিন মৌ বলেন ১৯৬৫ সালে পলাশপোল মৌজার জেএল নম্বর ৯৪, এসএ খতিয়ান ২৯৫০, খারিজ মত ২৯৫০/০২, ডিপি খতিয়ান৩৬৮, এসএ দাগ নম্বর ৩০৩, হাল দাগ নম্বর ৪৮৫৬ এর ৪৪ শতকর  মধ্যে ২২ শতক জমি তার দাদা শ্বোশুর ওয়াজেদ মিয়া মূল মালিক এলমানছারের কাছ থেকে ক্রয় করেন। ওই জমিতে আমার শ্বোশুর ও তার পরিবারের সদস্যরা শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করে আসছিলেন।
মৌ জানান ২০০৪ সালে মধুমোল্লারডাঙ্গির শেখ শহিদুল ইসলামের মেয়ে শাহানারা খাতুন ওই স্থানে এক শতক জমি কিনেছেন জানিয়ে তা দখল করতে আসেন। এ সময় গ্রামবাসী তাকে জানান শাহানারার কেনা জমি সরকারি রাস্তার ভিতর চলে গেছে। এ ছাড়া তার আর কোনো জমি সেখানে নেই। তিনি জানান একথা জানার পর শাহানারা খাতুন সাতক্ষীরা সদর সহকারি জজ আদালতে স্বত্ব প্রচারের মামলা করেন। মামলাটি এখনও চলমান রয়েছে। মৌ আরও জানান তাদের জমিতে ঘর বাঁধতে গেলে শাহানারা খাতুন তাতে বাধা দেন। এলাকাবাসী এর প্রতিবাদ করেন। এ নিয়ে আরও একটি মামলা চলমান রয়েছে।
এদিকে বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য পুলিশ সুপারের কাছে গেলে তিনি সদর থানাকে যথাযথ নির্দেশ দেন। এ অনুযায়ী গত ১২ এপ্রিল থানায় বসলে ওসি জানান বিষয়টি নিয়ে আদালত মামলা থাকায় সমাধান আদালতেই দিবেন। তিনি দুই পক্ষকে আদালতের নির্দশনা মেনে চলার পরামর্শ  দেন। মৌ জানান এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শাহানারা খাতুন পত্র পত্রিকায় বিভিন্ন ধরনের অসত্য তথ্য দিয়েছেন। এর প্রতিবাদ জানিয়ে মাসকুরা পারভিন মৌ বলেন এড্যাভোকট আব্দুল লতিফ আমাদের আইনজীবী মাত্র। তিনি এ সংক্রান্ত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com