সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৪৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
অন্ন বস্ত্রের সমাধানের পর গৃহহীনদের মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা -তথ্যমন্ত্রী   বিত্ত কখনো রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনা -তথ্যমন্ত্রী বাইডেনের শপথের সব আয়োজন সম্পন্ন, নজিরবিহীন নিরাপত্তা শিগগিরই ভ্যাকসিন বিতরণ কার্যক্রম শুরু : সংসদে প্রধানমন্ত্রী সিরাজগঞ্জে অবৈধ ৩টি ইটভাটায়  ভ্রাম্যমান আদালতে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মকর্তা পরিষদের নির্বাচন ১৪ জানুয়ারি বেলকুচিতে আলোচিত পিতা-পুত্র হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আটক স্পেনে তীব্র তুষারপাতে জনজীবন অচল: যান চলাচল বন্ধ সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের শিক্ষিকা শিউলী মল্লিকা গ্রেফতার দোহারে অবৈধ ড্রেজার পাইপ ভেঙ্গে দিল প্রশাসন 

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা পেলেই যেকোনো সময় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

খবরের আলো রিপোটঃ

 

 

অবশেষে শনিবার বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির খসড়া তালিকা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে যাচ্ছে। তার নির্দেশনা পেলেই যেকোনো সময় পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হতে পারে। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের পূর্ণাঙ্গ কমিটি আগামী সাত দিনের মধ্যে ঘোষণা হবে বলে জানা গেছে। আগে বারবার দিনক্ষণ দিয়েও পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা সম্ভব হয়নি ঐতিহ্যবাহী এই ছাত্র সংগঠনটির।

দলীয় সূত্র জানায়, ছাত্রলীগের কমিটি দেখভালের দায়িত্বে থাকা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম এবং বি এম মোজাম্মেল হক গত ১৭ এপ্রিল বৈঠক করেন গত কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ এবং সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেনের সঙ্গে। বৈঠকে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি চূড়ান্ত করার ব্যাপারে আলাপ-আলোচনা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২১ এপ্রিল বর্তমান সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর সঙ্গেও বৈঠক করা হয়। বৈঠকে সবার মতামত নিয়েই চূড়ান্ত করা হয়েছে খসড়া তালিকা, যা দলের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে যাচ্ছে আজ।

আওয়ামী লীগের এক নেতা এ বিষয়ে বলেন, ‘একাধিকবার বৈঠক করে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির খসড়া তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। দলের সভাপতি অনুমোদন দিলেই ঘোষণা করা হবে কেন্দ্রীয় কমিটি।’

সাধারণত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতাকর্মীদের বড় একটি অংশ কেন্দ্রীয় কমিটিতে চলে আসে। কিন্তু এবার কেন্দ্রীয় কমিটি না হওয়ায় ঢাবি কমিটিও আটকে আছে। ঢাকা মহানগরের দুই গুরুত্বপূর্ণ শাখারও একই সংকট। তবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়ে গেলেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ ও ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণেরও পূর্ণাঙ্গ কমিটি দিয়ে দেওয়া হবে।

এদিকে ছাত্রলীগের পদপ্রত্যাশীরা ছাত্রলীগের শীর্ষপদে স্থান পেতে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা, এমপি ও সাবেক ছাত্রনেতাদের কাছে যাচ্ছেন। আবার কেউ কেউ আওয়ামী পরিবারের সদস্য প্রমাণ দিতে জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের কাছ থেকে প্রত্যয়নপত্রও নিয়ে আসছেন। তবে কমিটিতে পদ পেতে বিতর্কিত ব্যক্তিরাও তদবির চালিয়ে যাচ্ছেন বলেও জানা গেছে। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের কার্যকাল দুই বছর। এর মধ্যে সম্মেলন না হলে কমিটির কার্যকারিতা থাকবে না।

উল্লেখ, গত বছরের ১১-১২ মে ছাত্রলীগের জাতীয় সম্মেলন হয়। সম্মেলনের আড়াই মাস পর ৩১ জুলাই সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের নাম ঘোষণা করা হয়। এখন ঘোষণা হতে যাচ্ছে পূর্ণাঙ্গ কমিটি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com