শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৪১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাইডেনের শপথের সব আয়োজন সম্পন্ন, নজিরবিহীন নিরাপত্তা শিগগিরই ভ্যাকসিন বিতরণ কার্যক্রম শুরু : সংসদে প্রধানমন্ত্রী সিরাজগঞ্জে অবৈধ ৩টি ইটভাটায়  ভ্রাম্যমান আদালতে ১১ লক্ষ টাকা জরিমানা নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মকর্তা পরিষদের নির্বাচন ১৪ জানুয়ারি বেলকুচিতে আলোচিত পিতা-পুত্র হত্যা মামলার অন্যতম আসামী আটক স্পেনে তীব্র তুষারপাতে জনজীবন অচল: যান চলাচল বন্ধ সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের শিক্ষিকা শিউলী মল্লিকা গ্রেফতার দোহারে অবৈধ ড্রেজার পাইপ ভেঙ্গে দিল প্রশাসন  সালমান এফ রহমানের দোহার – নবাবগঞ্জে উন্মুক্ত হলো ওয়াজ মাহফিল বদলগাছীর কোলা ইউনিয়ন কে মডেল ইউনিয়ন গড়ার প্রত্যয়ে কাজ করছেন চেয়ারম্যান স্বপন

আমি কখনো শ্রমিক ভয় পাই না ,আমি ভদ্রলোক ভয় পাই -শ্রীপুরে বিজি এমইএ সভাপতি ড . রুবানা হক

খবরের আলো :

মহিউদ্দিন আহমেদ ,শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুর জেলা পুলিশের উদ্যোগে শিল্প কারখানা নিরাপত্তা ও সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ সভাপতি ডঃ রুমানা হক তিনি বলেন
আসন্ন পবিত্র মাহে রমজান ও ঈদ-উল ফিতরের সময় কোন কারখানা শ্রমিক যেন খালি হাতে বাড়ি ফিরে না যায় সে জন্য যথাসময়ে বেতন বোনাস নিশ্চিত করার আহবান জানিয়েছেন।

(৫ মে)রোববার বিকেল ৩টায়

গাজীপুরের শ্রীপুরের গ্রীণ ভিউ রিসোর্টের হলরুমে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেল শেখের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন গাজীপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার, পিপিএম।

ড. রুবানা হক আরো বলেন, আমি কখনো শ্রমিক ভয় পাই না। আমি ভদ্র লোক ভয় পাই। মুখোশধারী ভদ্র লোক ভয় পাই। শ্রমিকেরা সাথে কথা বলা যায়। কিন্তু যারা শ্রমিকদের দারিদ্র নিয়ে যারা অনেক বড় বড় পরিসংখ্যান তৈরী করেন তাদের আমি সহ্য করতে পারি না। কারখানার মালিক ও শ্রমিকের সম্পকর্টা হতে হবে বন্ধুত্বের মত, কোন শ্রমিকের উপর অযাচিত বলপ্রয়োগ করা যাবে না, কোন অবস্থাতেই সাংঘর্ষিক হওয়া যাবে না। সকল সময় আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করতে হবে। এখনও আমাদের লজ্জার মধ্যে পড়তে হয়, যখন আমরা দেখি ট্রাক ভরে বেতনের দাবীতে শ্রমিকেরা বিজিএমইএ এর প্রধান কার্যালয়, সড়ক-মহাসড়কে অবস্থান নেয়।

বর্তমানে সরকারের নতুন বেতন কাঠামো অনুযায়ী বেতন ভাতা বাড়ায় অনেক কারখানার সঠিক সময়ে বেতন পরিশোধ করতে সমস্যার কথা উল্লেখ করে তিনি আরো জানান, এ থেকে আমাদের বের হয়ে আসতে হবে। কারখানার অভ্যন্তরের বিষয় কারখানার ভেতরেই সমাধান করতে হবে। কারন শ্রমিক ও মালিকদের মধ্যে যদি কোন গ্যাপ তৈরী হয় তাহলে এর মধ্যেই তৃতীয় একটা পক্ষ ঢুকে পরে। আর তখনই উস্কানীর মাধ্যমে পোষাক খাতে অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টা শুরু হয়। আমাদের এই বিষয়ে সচেতন হতে হবে।

নারীদের উপর বিশেষ গুরুত্ব দেয়ার আহবান জানিয়ে ড. রুবানা হক আরো বলেন, নারীরা আজ আমাদের সম্পদ, উন্নত দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে গড়ে তুলতে হলে নারীদের সকল ক্ষেত্রে এগিয়ে আসতে হবে, পুরুষের সাথে সমানতালে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে। সকল ক্ষেত্রে নারী নেতৃত্ব তৈরী করতে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে গাজীপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার বলেন, শিল্প সমৃদ্ধ গাজীপুরে আমরা অনেকটা চ্যালেঞ্জের মাধ্যমে কাজ করছি, বিশেষ করে পোষাক শিল্প প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তার লক্ষ্যে। তিনি পোশাক কারখানার মালিকদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, আপনারা সিদ্ধান্ত নেন কার সাথে ব্যবসা করবেন পুলিশ আপনাদের নিরাপত্তা দেবে। নিরাপদে ব্যবসা করার জন্য গাজীপুর এখন একটা উদাহরণ।

মতবিনিময় সভায় আরো বক্তব্য দেন বিকেএমইএ’ র সিনিয়র যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন গাজীপুরের বিভিন্ন পোষাক কারখানার মালিক ও প্রতিনিধিরা তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন। এ সময় বিভিন্ন কারখানার মালিক ও কর্মকর্তাদের উপস্থাপিত সমস্যার কথা তুলে ধরলে পুলিশ সুপার তা সমাধানের
দেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com