বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৮:৪২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বিচার বিভাগে করোনা শনাক্ত ৯৬৫ জনের, চিকিৎসাধীন ৫৯ বিচারক অব্যাহতির বিরুদ্ধে বাদী নারাজি দিচ্ছে মুনিয়া আত্মহত্যা মামলায় বসুন্ধরার এমডিকে অব্যাহতি দিয়ে প্রতিবেদনের শুনানি আজ হয়নি বাড়ছে ডেঙ্গু: প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ৭ নির্দেশনা নিজের আইসিইউ সিট ছেলেকে দিলেন মা, অবশেষে বাঁচলেন না কেউই সরকারি বিধিনিষেধ অমান্য করে বৌভাত অনুষ্ঠান করায় ১০,০০০ টাকা জরিমানা সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে বসতবাড়ির রাস্তা বন্ধ করায় ৪টি পরিবার অবরুদ্ধ মানিকগঞ্জে লকডাউনে কঠোর অবস্থানে গোলড়া হাইওয়ে থানা পুলিশ মাধবপুরে কাশিমনগর বাজারে  অগ্নিকান্ডে ১০ দোকান পুড়ে ছাই, প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি বনপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি শফিকুল ইসলামের বদলী, নতুন ওসি মোজাফ্ফর হোসেনের যোগদান বড়াইগ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধে বৃদ্ধাকে মারধর, বাড়িঘর ভাঙ্গচুর

রয়টার্সের সেই দুই সাংবাদিকের মুক্তি

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

 

মিয়ানমারের কারাগার থেকে পাঁচশ দিনেরও বেশি সময় বন্দি থাকার পর মুক্তি পেলেন বার্তা সংস্থা রয়টার্সের দুই সাংবাদিক। রাষ্ট্রীয় গোপন নথি ফাঁসের অভিযোগ এনে ২০১৭ সালের ১২ ডিসেম্বর রাখাইন রাজ্য পুলিশ ওয়া লোন (৩৩) এবং কিয়াও সো ওকে (২৯) গ্রেফতার করে। যদিও ওই অভিযোগ তারা অস্বীকার করে আসছেন।

রয়টার্স জানিয়েছে, মঙ্গলবার দেশটির প্রেসিডেন্টের করা সাধারণ ক্ষমার আওতায় মিয়ানমারের রাজধানী ইয়াঙ্গুনের উপকণ্ঠে ইনসেইন কারাগার থেকে ওই দুই সাংবাদিককে মুক্তি দেওয়া হয়। গত বছর সেপ্টেম্বরে রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা ভঙ্গের দায়ে তাদের সাত বছর করে কারাদণ্ড হয়।

বর্মী নববর্ষকে ঘিরে গত মাস থেকে অনেক কারাবন্দিকেই সাধারণ ক্ষমা প্রদান করছেন মিয়ানমার প্রেসিডেন্ট উইন মিন্ট। এরই আওতায় ওই দুই সাংবাদিককে মুক্তি দেওয়া হলো।

মুক্তি পাওয়া দুই সাংবাদিক তাঁদের পক্ষে কথা বলার জন্য আন্তর্জাতিক সব ধরনের প্রচেষ্টার প্রতি কৃতজ্ঞতা পোষণ করেন।

ওয়া লোন বলেন, ‘আমি নিজ পরিবার আর বন্ধুদের সঙ্গে দেখা করতে পেরে খুবই খুশি। সংবাদকক্ষে যাওয়ার জন্য আমার অপেক্ষা সইছে না।’

এর আগে গত মাসে মিয়ানমারের উচ্চ আদালতে নিজেদের সাজার বিরুদ্ধে সর্বশেষ আপিল করেন দুই সাংবাদিক। কিন্তু ওই সময় আদালত তাঁদের আবেদন নাকচ করেন। যদিও দুই সাংবাদিকই নিজেদের নির্দোষ বলে দাবি করে আসছিলেন।

এদিকে এপ্রিলে ওয়া লোন ও কিয়াও সোর স্ত্রী স্বামীদের জন্য সাধারণ ক্ষমা চেয়ে সরকারের কাছে আবেদন করেন। অবশেষে সাধারণ ক্ষমার আওতায় তারা মুক্তি পেলেন। চলতি মাসের শুরুর দিকে এ দুজন সাংবাদিকতার সর্বোচ্চ পুরস্কার পুলিৎজার লাভ করেন।

গ্রেফতার হওয়ার আগে ওয়া লোন এবং কিয়াও সো ও রাখাইন রাজ্যে সেনা ও বৌদ্ধ গ্রামবাসীর যৌথ সহিংসতায় ১০ রোহিঙ্গা হত্যার একটি ঘটনা তদন্ত করছিলেন।

মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর নির্যাতনের শিকার হয়ে ৯ লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com