শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৬:১৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ডিমলায় ব্যবসায়ীকে ভ্রামমান আদালতে জরিমানা  দাউদকান্দি সেতুর টোলে সাংবাদিকের গাড়ি ডাকাতি কোভিড মোকাবিলায় বাংলাদেশের দৃষ্টান্ত অনন্য : ডব্লিউএইচও আইজিপির সাথে বিএনপির প্রতিনিধি দলের বৈঠক অনুষ্ঠিত বদলগাছীতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কৃষি জমিতে চলছে পুকুর খনন জান্নাত একাডেমী হাই স্কুলে শহীদ দিবস উদযাপন দোহারে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত চাষের নতুন পদ্ধতি যন্ত্রের ব্যবহার বাড়বে কমবে সময়,শ্রম, ও খরচ – কৃষিমন্ত্রী  করনা মোকাবেলায় স্বর্ণপদক পেলেন ইউপি চেয়ারম্যান  আমিনুর রহমান আজ সৈয়দ মুহাম্মদ আহমদ উল্লাহ’র প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী

অটোরিক্সার অধিকাংশরা চালকই অপ্রাপ্তবয়স্ক অযোগ্য ড্রাইভিং লাইন্সেস বিহীন

খবরের আলো  :
শাকির আহমেদ শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি: বন্ধ হয়নি অটোরিক্সা চালকদের অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে যান চলাচল। রাজধানীর বিমানবন্দরর সড়কে শহিদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী বাস চাপায় নিহতের ঘটনায় দেশব্যাপী বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। ওই দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় নিরাপদ সড়কের দাবীতে সারা দেশে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা রাজপথে নেমে আসে, শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের দাবীতে সরকার সড়ক পরিবহন ২০১৮ আইনে সড়ক দূর্ঘটনা ৩০২ ধারা মামলাসহ পাঁচ লক্ষ টাকা জরিমানা বিধান করেন। এতেকিছুরপরও অধিকাংশ চালকরা আইন না মেনে শ্রীমঙ্গল-সাতগাঁও রুট,শ্রীমঙ্গল-মির্জাপুর-শমশেরগঞ্জ রুট,শ্রীমঙ্গল চৌমুহনা এলাকা থেকে মৌলভীবাজার রুট ও শ্রীমঙ্গল-ভানুগাছ রুটে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে চালাচ্ছেন বেপরোয়ভাবে।  এসব রুটে অধিকাংশ চালকই ড্রাইভিং লাইন্সেস বিহীন যানবাহন চালাচ্ছেন। একই অবস্থা শহরে ও শহরতলীতে চলাচলকারী টমটম গুলোতেও।
কিছু দিন আগে অটোরিক্সা (সি,এন,জি) সড়ক দূর্ঘটনার কবলে পরে মারাত্মক আহত হওয়া যাত্রী মো. মোসাহিদ জানান, চালকরা অতিরিক্ত যাত্রী বহনের ফলে দূর্ঘটনার কবলে পড়তে হয়। এমন দূর্ঘটনার শিকার শুধু আমি নয়, বিভিন্ন সড়কে চালকদের অসচেতনতায় অতিরিক্ত যাত্রী বহনের ফলে দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন অনেকই।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন যাত্রী জানান, আমরা প্রতিদিন অটোরিক্সা করে যাতায়াত করে থাকি। ড্রাইভারদের অতিরিক্ত যাত্রী বহনের ফলে যাতায়াত করতে হয় ঝুঁকি নিয়ে। ড্রাইভারদের অতিরিক্ত যাত্রী বহনের আপত্তি দিলে এতে কোনো লাভ হয়নি।
এদিকে মালিক পক্ষের অনেকেই কোনো নিয়মনীতি না মেনে অপ্রাপ্তবয়স্ক অযোগ্য ড্রাইভিং লাইন্সেস বিহীন চালকদের হাতে তুলে দিচ্ছেন এসব যানবাহন। ফলে প্রতিনিয়ত সড়ক দূর্ঘটনায় আহত ও নিহত হচ্ছেন সাধারণ মানুষ ও শিক্ষার্থীরা। শ্রীমঙ্গল উপজেলায় আইন শৃংখলা বাহিনীর মাঝে মধ্যে অভিযান চালালেও ট্রাফিক পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে চালকরা নিয়ম না মেনে অপ্রাপ্তবয়স্ক ড্রাইভিং লাইন্সেস ও ফিটনেস বিহীন যানবাহন চালাচ্ছেন ।
হবিগঞ্জ রোড গ্রুপ কমিটির সভাপতি মো.আব্দুল কাইয়ুম জানান, আমরা বহুবার জেলা ও উপজেলা কমিটিকে সাথে নিয়ে ড্রাইভিং লাইন্সেস ও ফিটনেস বিহীন অপ্রাপ্তবয়স্ক গাড়ি না চালানোর জন্য আন্দোলন করেছি। আমরা আবারও জেলা গ্রুপকে সাথে নিয়ে ড্রাইভিং লাইন্সেস ও ফিটনেস বিহীন অপ্রাপ্তবয়স্ক গাড়ি না চালাতে পারে এব্যাপারে আন্দোলন চালাবো।
এবিষয়ে নিরপদ সড়ক চাই শ্রীমঙ্গল শাখার সভাপতি মো. আমজাদ হোসেন রনি জানান, সড়ক দূর্ঘটনা রোধে আমরা গাড়ী চালক সহ বিভিন্ন স্কুল কলেজে নিরাপত্তা বিষয়ক সেমিনার আয়োজন করছি। কি কি কারণে দুর্ঘটনা ঘটে এবং কি ভাবে দূর্ঘটনা রোধ করা যায়, দুইটা বিষয়েই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।
শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম নজরুল জানান, আমরা তৎপরতা চালাচ্ছি এবং আমরা রাস্তার মোড়ে মোড়ে চেকপোস্ট বসিয়ে ড্রাইভিং লাইন্সেস ফিটন্সে বিহীন গাড়ী সহ অপ্রাপ্তবয়স্ক চালকদের ক্ষেত্রে আমাদের কার্য্যক্রম চলমান রেখেছি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com