বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০৭:২১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
নাটোরে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩৭৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার  স্পেনের জাতীয় জাদুঘরে অভিবাসীদের আনন্দ উৎসব পরকীয়া করতে এসে ধরা খেল  প্রেমিক!  থানায় মামলা, প্রেমিক শ্রীঘরে! রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে নারীদের গুরুত্ব নিয়ে ফেসবুকে আবেগময় পোস্ট করেন মামূনি খান (মনি)   ত্রিমোহনী সেতু প্রবেশ মুখে  গর্তের সৃষ্টি হয়েছে,  ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে নতুন সড়কের উদ্ভোদন করলেন নুরুল ইসলাম রাজা শরীয়তপুরে ২ হাজার ৭৩২ পিচ ইয়াবা সহ আটক মাদক ব্যবসায়ী ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের তালিকাভুক্ত কুখ্যাত ডাকাত ফারুক গ্রেপ্তার বড়াইগ্রামে ট্রাক-পিকআপ মুখোমুখি সংঘর্ষে পিকআপ চালক নিহত উদাসীনতায় হিলিতে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ

নরসিংদীর দুই বাড়ি জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রেখেছে পুলিশ

খবরের আলো রিপোর্ট :

 

নরসিংদীতে গতকাল সোমবার থেকে জঙ্গিদের আস্তানা সন্দেহে পৃথক দুটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট ও পুলিশ সদর দপ্তরের আড়িপাতা শাখা (এলআইসি) যৌথভাবে ওই অভিযান চালাচ্ছে। এতে সহযোগিতা করছে নরসিংদীর পুলিশ প্রশাসন।

কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের এডিসি রহমত উল্লাহ চৌধুরী বলেন, অভিযানের সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। বাড়ির ভেতরে থাকা জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হবে। তারা এতে সাড়া না দিলে চূড়ান্ত অভিযান চালানো হবে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। পুলিশের আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন।

এর আগে সোমবার বিকেলে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পাওয়ার পর মধ্যরাত থেকে পুলিশ সদর দপ্তরের এলআইসি শাখা, ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ইউনিট ও বগুড়া জেলা পুলিশের সমন্বিত দল বাড়ি দুটি ঘেরাও করে রাখে। ওই সময় পর্যন্ত পুলিশের ধারণা, বাড়ি দুটিতে ৫ থেকে ৬ জন জঙ্গির অবস্থান থাকতে পারে। তাদের ধারণা, আস্তানা দুটি জেএমবি বা নব্য জেএমবির হতে পারে।

কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের একজন কর্মকর্তা বলেন, কয়েকদিন ধরেই তাদের কাছে গোয়েন্দা তথ্য ছিল নরসিংদীতে একাধিক জঙ্গি আস্তানা রয়েছে।

এ তথ্যের সূত্র ধরে গোয়েন্দা নজরদারির মাধ্যমে গতকাল বিকেলে মাধবদী ও শেখেরচরে সন্দেহভাজন আস্তানা দুটি শনাক্ত করা হয়। রাত সাড়ে ৮টার দিকে নিশ্চিত হওয়া যায় মাধবদীর সাততলা বাড়ির একটি তলা ও শেখের চরে ষষ্ঠতলা বাড়ির একটি তলায় জঙ্গি আস্তানা রয়েছে। রাত সাড়ে ১২টার দিকে বাড়ি দুটি ঘেরাও করা হয়। আশপাশের বাড়ি থেকে লোকজন সরানো হচ্ছে। পাশাপাশি ওই এলাকা দিয়ে সাধারণ মানুষের চলাচলও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের একজন কর্মকর্তা বলেন, বিকেল থেকেই পুলিশ সদর দপ্তরের এলআইসি ও বগুড়া পুলিশের একটি দলের সঙ্গে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সদস্যরা ওই এলাকায় রেকি করে। তবে মধ্যরাতে নিশ্চিত হয়ে চূড়ান্ত প্রস্তুতি হিসেবে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সোয়াট টিম ও বোম্ব ডিসপোজাল টিমকে জরুরি তলব করা হয়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com