মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০১:২০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
এক দিনের জন্য ব্যাংক লেনদেনের সময় বাড়ল রোজায় করোনা সংক্রমণ বাড়ার প্রমাণ পাওয়া যায়নি: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানুষের দুর্ভোগ আরও কিছুদিন বাড়বে: রেলমন্ত্রী সর্বাত্মক লকডাউনের আগে যেভাবে ঢাকা ছাড়ছেন হাজারো মানুষ আ.লীগ নেতার বাড়িতে ব্যবসায়ীর লাশ, এসপি অফিস ঘেরাও রাজৈরে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ দৌলতপুরে লকডাউন কার্যকর করতে মাঠে নেমেছে প্রশাসন জাতীয় গনমাধ্যম সপ্তাহকে রাষ্ট্রীয় স্মীকৃতির দাবীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করে শ্রীপুরে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে ইউপি সদস্য কর্তৃক সাংবাদিকের উপর হামলা বাবরকে দেখে শিখুক কোহলি!

কংগ্রেস প্রধান নির্বাচনের বৈঠকে থাকলেন না সোনিয়া ও রাহুল

ফাইল ছবি

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

 

দলীয় প্রধান নির্বাচনের লক্ষ্যে বসা বৈঠকে অংশ নিয়েও তা থেকে বের হয়ে এলেন কংগ্রেসের সভাপতির পদ ছাড়া রাহুল গান্ধী।

কংগ্রেস সভাপতির পদে কে আসছেন- তা নির্ধারিত হচ্ছে শনিবার রাতেই। এ নিয়েই এখন চলছে অভ্যন্তরীণ বৈঠক। বৈঠক থেকে রাহুলের সঙ্গে বেরিয়ে আসেন তার মা সোনিয়া গান্ধীও।

এনডিটিভি বলছে, রাহুল কংগ্রেস প্রধানের পদ ছাড়ার পর সাময়িক সঙ্কট তৈরি হয় দলে। এ সংকট নিরসনে দলে নতুন সভাপতি নির্বাচন করা হচ্ছে। সোনিয়া-রাহুল বের হয়ে এলেও বৈঠকে অংশ নিয়েছেন রাহুলের বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

অভ্যন্তরীণ বৈঠক থেকে বেরিয়ে রাহুল জানিয়েছেন, তার উত্তরসূরি নির্বাচনের জন্য দলকে একটি মুক্ত পরিবেশ দিতে চান; তাই বৈঠকে না থাকার সিদ্ধান্ত তার। তারা এই সভাপতি নির্বাচন বিষয়টিকে জটিল করতে বা ‘ফেভারিট প্লে’ করতে চান না বলেই বৈঠকে না থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বৈঠক থেকে বের হয়ে সোনিয়া গান্ধী বলেন, ভুল করেই সভাপতি নির্বাচনের তালিকায় আমাদের নাম রাখা হয়েছিল। আঞ্চলিক গোষ্ঠীগুলিই নির্বাচন প্রক্রিয়াতে মূল ভূমিকা পালন করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

উভয় নেতাকেই আঞ্চলিক গোষ্ঠীর অংশ করা হয়েছিল। ওই আঞ্চলিক গোষ্ঠীগুলি রাহুল গান্ধীর পরামর্শেই গঠিত হয়েছিল যাতে নতুন নেতা নির্বাচনের আগে বিস্তারিত আলোচনা করা যায়।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, সোনিয়া গান্ধীকে পূর্ব আঞ্চলিক কমিটির অংশ করা হয়েছিল। মহারাষ্ট্র তথা পশ্চিম ভারতের আঞ্চলিক কমিটির অংশ হিসেবে রাহুলের নাম ঘোষণা করা হয়েছিল।

রাহুলের বোন প্রিয়াঙ্কা যিনি লোকসভা নির্বাচনের আগেই ফেব্রুয়ারি মাসে সক্রিয় রাজনীতিতে প্রবেশ করেছিলেন, তিনি কংগ্রেসের এই অধিবেশনে যোগ দিয়েছেন।

প্রিয়াঙ্কা গান্ধী দলের দায়িত্ব নেবেন বলে প্রস্তাব তুলেছেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং। তবে রাহুল এই প্রস্তাব উড়িয়ে সাফ জানিয়েছেন দল তার মা বা বোনকে শীর্ষ পদে নিতে পারবে না।

লোকসভা নির্বাচনে দলের পরাজয়ের দায় স্বীকার করে প্রায় মাস দুয়েক আগে দলের সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী। তারপর থেকেই কংগ্রেস প্রধানের পদটি ফাঁকা পড়ে রয়েছে।

শূন্য ওই পদের দায়িত্ব কে নেবেন, তা নিয়ে এতদিন ধরে জোর জল্পনা চলছিল দলের ভিতরে-বাইরে। এবার সেই জল্পনার অবসান হতে চলেছে। দলের নতুন সভাপতি নির্বাচন সম্পন্ন করতে কংগ্রেসের কার্যকরী কমিটি সকাল ১১টায় শুরু করে বৈঠক।

রাজনৈতিক মহলের জল্পনায় উঠে আসছে কংগ্রেস প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হতে যাওয়া একাধিক নাম। তার মধ্যে মল্লিকার্জুন খড়েগ এবং মুকুল ওয়াসনিকের নাম বেশি আলোচনায় এসেছে। অন্যদিকে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিংহও, জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, সচিন পাইলটের নামও আছে আলোচনায়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com