সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৭:৪৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মাধবপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান গাজীপুরে পোশাক নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার ত্রিশালে রাস্তার দূর্ভোগে লালপুর-কৈতরবাড়ী ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা হলে অপরাধীদের মধ্যে ভীতিও থাকবে: কাদের ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাহাড়পুর একিয়া ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিনব কায়দায় রোগীর সাথে প্রতারণা নবাবগঞ্জে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর লাশ উদ্ধার মাধবপুরে করোনার ভাইরাসের সুযোগে বালু খেকোদের রমরমা ব্যবসা নৌকায় ভোট দেয়ার অপরাধে বিএনপি দলগতভাবেই এইসব অপকর্ম করেছিল -তথ্যমন্ত্রী বড়াইগ্রামে জোর পুর্বক ঘরবাড়ি ভাংচুর করে রাস্তা নির্মাণ

ডেঙ্গুতে মারা যাওয়া অস্বচ্ছল পরিবারের কেউ চাইলে সহায়তা করা হবে : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

খবরের আলো রিপোটঃ

 

 

এবারে ডেঙ্গুর মাত্রা আমাদেরকে নতুন এক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি করেছে। ডেঙ্গুর ভয়াবহতা কেউই আগে অনুমান করতে পারেননি। অভিজ্ঞতার অভাব থাকলেও সরকার ডেঙ্গু মোকাবিলায় কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সফলতা বিফলতার কথা না ভেবে; আমরা বলতে চাই ডেঙ্গু মোকাবিলায় সরকার জনগণকে সম্পৃক্ত করতে পেরেছে। ঈদ পরবর্তীতে ডেঙ্গু পরিস্থিতি অবনতি না হয়ে বরং অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসেছে। গ্রামেগঞ্জে ছড়িয়ে যাওয়ার যে আশংকা ছিল তাও ঘটেনি। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে এরই মধ্যে মারা যাওয়া অস্বচ্ছল পরিবারের কেউ চাইলে এলজিআরডি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে তাদেরকে সহায়তা করা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

আজ শুক্রবার এফডিসিতে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি আয়োজিত ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলা নিয়ে ইউসিবি পাবলিক পার্লামেন্ট ছায়া সংসদ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো. তাজুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

এসময় এলজিআরডি মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ডেঙ্গু আজ শুধু বাংলাদেশের সমস্যা নয়, এটি এখন সারা বিশ্বের সমস্যা। এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে ম্যালাথিয়ন ছাড়াও এখন আমরা আরো কার্যকর ওষুধ খুঁজছি। শুধু ওষুধ প্রয়োগ করলেই হবে না তা যেনো কোনোভাবেই জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি হয়ে না দাঁড়ায় আমরা সে বিষয়টিও ভাবছি। এডিস মশা নিযন্ত্রণে শুধু বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে দায়ী করা হচ্ছে না, সরকারি অফিসগুলোও যাতে সঠিক দায়িত্ব পালন করে এ ব্যাপারে আমরা নির্দেশনা দিয়েছি। ডেঙ্গু মোকাবিলায় আমরা সফল না; এ কথা সঠিক নয়।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ। প্রতিযোগিতায় সমান নম্বর পাওয়ায় অংশগ্রহণকারী ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ও বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি উভয় দলকে বিজয়ী বলে ঘোষণা করা হয়।

প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন, সাংবাদিক মাঈনুল আলম, সাংবাদিক জান্নাতুল বাকেয়া কেকা, সাংবাদিক হাবিবুর রহমান রাহী, সাংবাদিক আতাউর রহমান কাবুল, ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক জাহিদ রহমান। প্রতিযোগিতা শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানার আপ দলকে ট্রফি, ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com