মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৩১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মাধবপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান গাজীপুরে পোশাক নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার ত্রিশালে রাস্তার দূর্ভোগে লালপুর-কৈতরবাড়ী ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা হলে অপরাধীদের মধ্যে ভীতিও থাকবে: কাদের ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাহাড়পুর একিয়া ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিনব কায়দায় রোগীর সাথে প্রতারণা নবাবগঞ্জে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর লাশ উদ্ধার মাধবপুরে করোনার ভাইরাসের সুযোগে বালু খেকোদের রমরমা ব্যবসা নৌকায় ভোট দেয়ার অপরাধে বিএনপি দলগতভাবেই এইসব অপকর্ম করেছিল -তথ্যমন্ত্রী বড়াইগ্রামে জোর পুর্বক ঘরবাড়ি ভাংচুর করে রাস্তা নির্মাণ

কোনভাবেই থামছেনা মিরপুর থানা এলাকার আজমেরী গংদের মাদক বানিজ্য

খবরের আলো :

 

 

মো:আমিন হোসাইন : কোনভাবেই থামছে না রাজধানীর মিরপুরের ভয়াবহ মাদকের বিস্তার। বরং মাদক বিক্রির কৌশল পাল্টে নতুন নতুন কৌশল অবলম্বন করে মিরপুরের বিভিন্ন এলাকায় মাদকের বিস্তার ক্রমশ বাড়ছেই। গোটা মিরপুরের বিভিন্ন অর্ধ-শতাধিক শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীর নিয়ন্ত্রণে ছোট বড় প্রায় শতাধিক চিন্হিত স্পটে নিয়মিত চলছে নানা ধরনের মাদকদ্রব্যের রমরমা বানিজ্য।এর বাইরেও আছে ছোটখাট অসংখ্য স্পট। এদের অনেকে বিভিন্ন মামলায় জেলহাজতে থাকলেও জেলে বসে, এমনকি অনেকে দূরে পালিয়ে থেকেও নিয়ন্ত্রণ করছে তাদের মাদক সম্রাজ্য। সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ি গোটা মিরপুরে চিন্হিত মাদকের স্পট ৭০ টির উপরে। তবে দৈনিক খবরের আলো আলাদা আলাদা প্রতিবেদন তৈরিতে অনুসন্ধানে মাঠে নেমেছে। শুরুতেই মিরপুর  থানার মাদক কারবারিদের কিছু চিএ তুলে ধরা হলো। মিরপুর  থানা এলাকার এ  ব্লক একটি মাদকের আখরা হয়ে গেছে। প্রশাসন বার বার চেষ্টা করলেও কোন ভাবেই নির্মূল করতে পারছেনা মাদক বানিজ্য। মাদক ব্যবসার কৌশল পাল্টানোর কারনে এই মাদক ব্যবসায়ীদের ধরতে বেগ পেতে হচ্ছে থানা পুলিশের।  কোন ভাবেই থামানো যাচ্ছেনা পাখি গং ও আজমেরী এবং মুক্তার মাদক বানিজ্য ।আজমেরী পাখীর দ্বীতিয় বই। আজমেরী বিভিন্ন কৌশলে পাখিকে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকেই তাদের মাদক বানিজ্য দিনে দিনে বেড়েই চলছে। মিরপুর থানা এলাকার এ ব্লকে ৪ নং রোডের ৫৫ নাম্বারের  নিজ  ৬ তলা বাড়ীতে দেদারছে মাদক ব্যবসা চালীয়ে যাচ্ছে। পাখি বর্তমানে জেলহাজতে থাকায় তাদের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে পাখির বউ আজমেরী,পাখির ভাই বাদলের বউ মুক্তা,ও তাদের দেওর গালীব বর্তমানে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।বিভিন্ন কৌশল ব্যবহার করে তারা এই মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।এ ব্যাপারে কথা বললে   এলাকাবাসী  দৈনিক খবরের আলোকে বলেন এই মাদকের জন্য গোটা সমাজের যুব সমাজ ধ্বংসের দিকে ধাবিত হচ্ছে আর তাই এাই মাদক ব্যবসায়ীদের আইনের আওতায় নিয়ে এসে শাস্তি প্রদানের দাবী জানায় এলাকাবাসী। । আর এই আজমেরী,মুক্তা ও গালীবের ব্যাপক অনুসন্ধান চলছে  অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের  জন্য চোখ রাখুন পরবর্তী প্রতিবেদনে…………….

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com