বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০১:০২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

নারায়ণগঞ্জকে উচ্চতার শিকড়ে পৌঁছে দিতে চায় এসপি হারুন

খবরের আলো :
স্টাফ রিপোর্টার নারায়ণগঞ্জ : এসেই বলেছিলেন আমি একটু ভিন্ন রকম। জানান দিয়েছিলেন, অপকর্ম যারা করেন তারা সাবধান হয়ে যান। শুধু বলেই ক্ষান্ত হননি কাজেও দেখিয়ে দিয়েছেন তিনি। একের পর এক রাঘব বোয়ালদের শাসানি যেমন দিয়েছেন তেমনি পাকড়াও করেছেন ক্ষমতাধরদের। ফুটপাত দখলমুক্ত, চাঁদাবাজ গ্রেপ্তার, জবরদখলদারের হাত থেকে ভূমি উদ্ধার, শিল্প এলাকায় শান্তি বজায় রাখা তার অন্যতম সাফল্য। যার পুরস্কার স্বরুপ ৬ষ্ঠ বারের মতো ঢাকা রেঞ্জে শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার মনোনীত হয়েছেন মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ৷ তার এ প্রাপ্তি নারায়ণগঞ্জকে অন্যরকম উচ্চতায় পৌঁছে দিচ্ছে, যা কিছু দিন আগেও মানুষ ভাবতো না।

সোমবার সকালে ঢাকা রেঞ্জের সম্মেলন কক্ষে জুলাই মাসের মাসিক অপরাধ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি সালেহ মোহাম্মদ তানভীর, মো. আসাদুজ্জামান সহ বিভিন্ন জেলার পুলিশ সুপারগণ। সভায় আবারও ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার হিসেবে নির্বাচিত হন নারায়ণগঞ্জ এর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ৷ওয়ারেন্ট তামিল, হকার উচ্ছেদ, মাদক উদ্ধার, শিল্প এলাকায় শান্তি বজায় রাখার অবদান সহ জেলার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সন্তোষজনক হওয়ায় এ পুরস্কার দেয়া হয় তাকে।

 একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে এ জেলায় যোগ দেন হারুন অর রশীদ। তার আগমনে পাল্টে যায় এখানকার চিত্র। নাগরিক নেতা, সুশীল সমাজসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাদের মতে, এর আগে যে কথা কেউ কল্পনা করতে পারেনি এসপি হারুন তাই দেখিয়েছেন। একজন প্রভাবশালীর এমপি ও তার অনুগতদের অন্য কেউ ঘাটাতে না পারলেও তিনি তা পেরেছেন। তার নির্দেশে পুলিশ পাগলার টেনু গাজী, কুতুবপুরের মীরুর মতো সন্ত্রাসীদের সুনির্দিষ্ট অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছে। জামতলায় চাঁদা দাবি করায় মামলা হয়েছে একজন সংসদ সদস্যের পুত্রে সমন্ধির নামে। শহরের তামাকপট্টি এলাকায় মসজিদের হিসেব ও কমিটি নিয়ে রাতভর সংঘর্ষের পর পাল্টাপাল্টি মামলা গ্রেপ্তার হয়েছে কাউন্সিলর কবীর হোসেন ও সাবেক কাউন্সিলর মুন্না। চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে শামীম ওসমানের খুব ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত কাউন্সিলর আ. করিম বাবু। মাদকসহ গ্রেপ্তার হয়েছে বন্দরের কাউন্সিলর দুলাল প্রধান। একাধিক ব্যক্তি দখলদারদের হাত থেকে নিজের জমি রক্ষা করতে পেরেছেন এসপি হারুনের কল্যাণে। শহরের ফুটপাতে হকার বসিয়ে প্রভাবশালীরা চাঁদা আদায় করতো দীর্ঘ দিন ধরে। এ হকার উচ্ছেদ নিয়ে গত বছর সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে শহরে। এরপরও পেছনে থাকা চাঁদাবাজদের আস্কায়রা হকাররা ফুটপাত ছাড়ছিলো না। পুলিশ সুপারের শক্ত অবস্থানে এখন তারা শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাতে বসতে পারেন না। এদিকে প্রথমদিকে তার কাজে একটি প্রভাবশালী মহল বাধা দিতে চাইলেও পরে তারা পিছ পা দেয়। শোনা যায়, এসপি তাদের ছেড়ে কথা বলেনি।

এদিকে এসপির হারুন এ জেলায় আসার পর সাধারণ মানুষ খুব খুশী। তারা এখন সন্ত্রাসীদের ভয় পায় না। কেউ কেউ সন্ত্রাসীদের উল্টো ভয় দেখিয়ে বলে, এসপি হারুনের কাছে অভিযোগ দিবো। মো. ফজলুল হক নামের এক বৃদ্ধ এ প্রতিবেদককে জানান, আমার একটি জায়গা ফতুল্লার বাড়ৈভোগ মৌজায় অবস্থিত। এ জায়গা না কিনেই দখল করে রেখেছে ফারিহা গ্রুপের মালিক। তারা আমাকে তাদের পছন্দমতো দাম দিয়ে জায়গা কিনতে চেয়েছিলো আমি বিক্রি করিনি। এতদিন ভয়ে কিছু বলিনি এখন আর ভয় নেই। আমি এসপি হারুন সাহেবের গিয়ে অভিযোগ করবো।

তার মতো এমন অনেকেই এভাবে ভাবছেন। দীর্ঘ দিনের পুরনো অভিযোগও এখন নতুন করে সামনে নিয়ে আসছে অনেকে। মোদ্দা কথায় এসপি হারুন নারায়ণগঞ্জকে একটি উচ্চ মাত্রায় পৌঁছে দিচ্ছেন। যার সাথে একমত পোষণ করেন নারায়ণগঞ্জের নাগরিক নেতা, সাংবাদিক নেতা, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সহ সমাজের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ। তারা বিভিন্ন সময়ে বলে থাকেন, মানুষ তার প্রতি ভরসা রাখেন। তিনি কোন অন্যায়কে প্রশ্রয় দিবেন না বলেই জানেন। সম্প্রতি বাস ভাড়া নিয়ে তার বক্তব্যও গ্রহনযোগ্যতা পেয়েছে মানুষের মাঝে। এসপি হারুন বলেছেন, ঢাকা নারায়ণগঞ্জের বাস ভাড়া বেশী। তা অবশ্যই কমাতে হবে।

জেলা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে , এসপি হারুন জেলায় যোগদানের পর ২০১৮ সালের ডিসেম্বর ও ’১৯ সালের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি মাসের অপরাধ সভায়ও পরপর তিন বার ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার নির্বাচিত হয়েছিলেন। পরে মে-জুন এবং এবার জুলাই মাসে একটানা পরপর তিন বার সহ সব মিলিয়ে অদ্যবধি ৬ষ্ঠ বারের মতো ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ এসপি উপাধি লাভ করলেন। এসপি হারুন পুলিশের সর্বোচ্চ রাষ্টীয় সম্মান হিসেবে ৩ বার বিপিএম ও ২ বার পিপিএম পদক পেয়েছেন

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com