বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১০:৫৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মাধবপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান গাজীপুরে পোশাক নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার ত্রিশালে রাস্তার দূর্ভোগে লালপুর-কৈতরবাড়ী ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা হলে অপরাধীদের মধ্যে ভীতিও থাকবে: কাদের ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাহাড়পুর একিয়া ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিনব কায়দায় রোগীর সাথে প্রতারণা নবাবগঞ্জে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর লাশ উদ্ধার মাধবপুরে করোনার ভাইরাসের সুযোগে বালু খেকোদের রমরমা ব্যবসা নৌকায় ভোট দেয়ার অপরাধে বিএনপি দলগতভাবেই এইসব অপকর্ম করেছিল -তথ্যমন্ত্রী বড়াইগ্রামে জোর পুর্বক ঘরবাড়ি ভাংচুর করে রাস্তা নির্মাণ

অন্যায় নির্যাতন করে মানবসভ্যতার ইতিহাসে কেউ টিকে থাকতে পারবে না : ফখরুল

ফাইল ছবি

খবরের আলো রিপোটঃ

 

 

রবিবার, ০১ সেপ্টেম্বর : আওয়ামী লীগের ব্যর্থতার কারণে বিএনপির জন্ম হয়েছে উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বিএনপির জন্ম এমন একটি রাজনৈতিক শূন্যতায়, যার সৃষ্টি করেছিল আওয়ামী লীগ। সে কারণেই শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ১৯৭৮ সালে বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

আজ রবিবার বিকেলে রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের মিলনায়তনে বিএনপির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আলোচনাসভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, অন্যায় নির্যাতন করে মানবসভ্যতার ইতিহাসে কেউ টিকে থাকতে পারেনি। না নমরুদ, না ফেরাউন পেরেছে। না হিটলার, না মুসোলিনী পেরেছে। না আইউব খান, না এরশাদ পেরেছে। বর্তমান সরকারও টিকতে পারবে না। তারা লড়াই সংগ্রাম করে তাদের অধিকার আদায় করে নেবে।

তিনি বলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ১৯৭৮ সালে রোহিঙ্গাদের অতি অল্প সময়ে ফেরাতে সক্ষম হয়েছিলেন। অথচ এই সরকার দুইবার চেষ্টা করেও একজন রোহিঙ্গাকে ফেরাতে পারেনি। অথচ তারা বলে চীনের সঙ্গে তাদের নাকি সম্পর্ক সুউচ্চ পর্যায়ে রয়েছে। ভারতের সঙ্গে নাকি তারচেয়েও বেশি। তাহলে কি হলো, আজকে ভারত কি অবস্থান নিয়েছে, চীন কি অবস্থান নিয়েছে?

ফখরুল বলেন, আজকে দুঃখ হয়, কষ্ট হয়, যে দাবি আওয়ামী লীগের ছিল, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন। জনগণের সঙ্গে সম্পূর্ণ প্রতারণা করে ২০১২ সালে তাদের সুবিধামতো সংবিধান পরিবর্তন করে নিয়েছে। কারণ তারা জানে যে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে তারা কোনো দিনই ক্ষমতায় আসতে পারবে না।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আসুন এই প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে আমরা শপথ নেই, আমরা বিএনপিকে সুসংগঠিত করবো। আমাদের দল ইতোমধ্যে সুসংগঠিত হতে শুরু করেছে। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মহোদয় তারেক রহমান তার অসাধারণ দক্ষতা দিয়ে ইতোমধ্যে দলকে সংগঠিত করতে শুরু করেছেন। আমরা বিশ্বাস করি, আমাদের দল সম্পূর্ণভাবে সংগঠিত হবে।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জম হোসেন আলাল, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দীন টুকু প্রমুখ বক্তব্য দেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com