বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ১২:১০ পূর্বাহ্ন

মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে ২০ হাজার কোটি টাকার মানহানির মামলা,গ্রেফতারি পরোয়ানা

খবরের আলো রিপোর্ট :

 

 

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে ২০ হাজার কোটি টাকার মানহানির মামলা করা হয়েছে জামালপুরের আদালতে। পরে আদালত মামলা আমলে নিয়ে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

রোববার সকালে জামালপুর সদর আমলি আদালতে মানহানির মামলা করেন যুব মহিলা লীগের জামালপুর শাখার আহ্বায়ক ফারজানা ইয়াসমীন লিটা।

আদালতের বিচারক হাকিম সোলায়মান কবির মামলাটি গ্রহণ করে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

ফারজানা ইয়াসমীন লিটার পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট বাকী বিল্লাহ।

মামলার আরজিতে বলা হয়, গত ১৬ অক্টোবর একাত্তর টিভির একাত্তর জার্নাল নামের একটি টকশোতে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টির উদ্দেশে নারী অবমাননামূলক বক্তব্য দেন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন। ওই বক্তব্যে সমগ্র নারীর মর্যাদাকে হেয় করা হয়েছে। তার বক্তব্য মানহানিকর। মামলায় ২০ হাজার কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে।

এদিকে মানহানির অভিযোগে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে আজ রোববার ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আসাদুজ্জামান নূরের আদালতে মামলা করেছেন সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি।

আদালত এ বিষয়ে শুনানি নিয়ে পরে আদেশ দেবেন বলে জানান।

উল্লেখ্য, গত ১৬ অক্টোবর একাত্তর টেলিভিশনের টক শো ‘একাত্তরের জার্নাল’ এ ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি প্রশ্ন করেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে আপনি যে হিসেবে উপস্থিত থাকেন- আপনি বলেছেন আপনি নাগরিক হিসেবে উপস্থিত থাকেন। কিন্তু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই বলছেন, আপনি জামায়াতের প্রতিনিধি হয়ে সেখানে উপস্থিত থাকেন।’

মাসুদা ভাট্টির এই প্রশ্নে রেগে গিয়ে মইনুল হোসেন বলেন, ‘আপনার দুঃসাহসের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ দিচ্ছি। আপনি চরিত্রহীন বলে আমি মনে করতে চাই। আমার সঙ্গে জামায়াতের কানেকশনের কোনো প্রশ্নই নেই। আপনি যে প্রশ্ন করেছেন তা আমার জন্য অত্যন্ত বিব্রতকর।’

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com