শনিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২০, ১০:৫০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

গরু দত্তক দিতে চায় ভারত

ছবি: হিন্দুস্তান টাইমস

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

 

মঙ্গলবার, ১০ সেপ্টেম্বর : ভারতীয় তরুণ প্রজন্মকে গরুভক্তিতে অনুপ্রাণিত করতে ‘গরু দত্তক স্কিম’ চালু করতে যাচ্ছে ভারতের মধ্যপ্রদেশ সরকার। এ উদ্দেশ্যে ‘অ্যাডাপ্ট-অ্যা-কাউ’ নামে একটি আপ্লিকেশন তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।

সনাতন বিশ্বাসমতে আদিকাল থেকেই গরু একটি পবিত্র প্রাণী হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছে। গরুর দুধ থেকে শুরু করে গোবর ও মূত্রও পবিত্র ও মহৌষধ বলে মানে সনাতনীরা। তরুণ প্রজন্মের কাছে গরুভক্তিকে জনপ্রিয় করে তোলার উদ্দেশ্যেই এমন উদ্যোগ বলে প্রচার করছে সরকার।

সরকারের এই স্কিম অনুযায়ী, যে কেউ তিন লাখ রুপির বিনিময়ে সারাজীবনের জন্য একটি গরু দত্তক নিতে পারবে। অপেক্ষাকৃত অসচ্ছলদের জন্যও দত্তক নেওয়ার সুযোগ রাখতে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। সেক্ষেত্রে, এক বছরের জন্য দত্তক নিতে চাইলে ২১ হাজার এবং ১৫ দিনের জন্য ভরণ-পোষণের দায়িত্ব নিতে চাইলে দেড় হাজার রুপি খরচ করতে হবে ব্যক্তিকে।

মধ্যপ্রদেশ পশুপালন অধিদপ্তর এরই মধ্যে পুরো রাজ্যে এক হাজার গাইশালা (যেখানে গরু রাখা হবে) নির্মাণের জন্য চাঁদা তোলা শুরু করেছে। এইসব গাইশালা থেকে নাগরিকরা চাইলে গরু দত্তক ছাড়াও গোবর এবং মূত্রও কিনে নিয়ে যেতে পারবেন।

পশু সম্পদ মন্ত্রী লক্ষণ সিং যাদব বলেন, ‘এখানে প্রচুর মানুষ আছেন যারা গরু পূজা করেন এবং গরুর কল্যাণ চান। আমরা তাদের জন্য একটি হাইটেক প্লাটফর্ম তৈরি যাচ্ছি। তাদের সুবিধার্থে আমরা নতুন একটি মোবাইল অ্যাপ তৈরি করতে চাচ্ছি যেখান থেকে তারা পছন্দমতো গরু দত্তক নিতে পারবে। যাদের ভরণ-পোষণের সময় নেই, তাদের জন্যও থাকছে ভক্তির সুযোগ। তারা চাইলে গরুর জন্য সবুজ ঘাস, প্লাস্টিক শেড, ওষুধপত্র, কুলার ইত্যাদি দান করতে পারবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘অ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য বিভিন্ন অপশন থাকবে আমাদের অ্যাপে। তারা তাদের বাজেট অনুযায়ী এসব সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। এমনকি চাইলে অনুদানও দিতে পারনে। এই অ্যাপের মাধ্যমে গো-মূত্র ও গোবরের কেকও কেনা যাবে।’

উল্লেখ্য, মোদী সরকার গো-হত্যা নিরোধে কঠোর আইন জারি করার পর থেকেই গত কয়েক বছরে ভারতে গরুর সংখ্যা উল্লেখজনক হারে বেড়ে গেছে। মধ্যপ্রদেশে হাজারখানেক গরু মালিকবিহীন অবস্থায় শহরের রাস্তাগুলোতে ঘুরে বেড়াচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রেই ট্রাফিক জ্যামসহ নানা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন নাগরিকরা।সূত্রঃ হিন্দুস্তান টাইমস ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

 

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com