বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১০:১৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মাধবপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান গাজীপুরে পোশাক নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার ত্রিশালে রাস্তার দূর্ভোগে লালপুর-কৈতরবাড়ী ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা হলে অপরাধীদের মধ্যে ভীতিও থাকবে: কাদের ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাহাড়পুর একিয়া ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিনব কায়দায় রোগীর সাথে প্রতারণা নবাবগঞ্জে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর লাশ উদ্ধার মাধবপুরে করোনার ভাইরাসের সুযোগে বালু খেকোদের রমরমা ব্যবসা নৌকায় ভোট দেয়ার অপরাধে বিএনপি দলগতভাবেই এইসব অপকর্ম করেছিল -তথ্যমন্ত্রী বড়াইগ্রামে জোর পুর্বক ঘরবাড়ি ভাংচুর করে রাস্তা নির্মাণ

বিমানে যুক্ত হচ্ছে আরও দুটি অত্যাধুনিক ড্রিমলাইনার

খবরের আলো রিপোটঃ

 

 

বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর : এবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের বহরে যুক্ত হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের বোয়িং কোম্পানির তৈরি আরও দুটি অত্যাধুনিক ড্রিমলাইনার। ড্রিমলাইনার দুটি চীনা একটি এয়ারলাইনসের অর্ডারে প্রস্তুত করা হলেও তারা তা নেয়নি। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগ্রহে ড্রিমলাইনার দুটি কিনবে বাংলাদেশ। বর্তমানে বিমানের বহরে চারটি ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার রয়েছে। এবার যুক্ত হবে দুটি ৭৮৭-৯ ড্রিমলাইনার।

বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

গত ১৭ সেপ্টেম্বর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমানের চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ৭৮৭-৮ এনেছি চারটা। ড্যাশ বোম্বার্ডিয়ার আসছে আরও তিনটা। আমরা খবর পেয়েছি, বোয়িং আরও দুটি বিমান বিক্রি করতে চাচ্ছে। কেউ অর্ডার দিয়ে নেয়নি। সুযোগটা আমরা নেবো।

বিমান সূত্রে জানা গেছে, বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার দেশে আনতে সিয়াটলে গিয়েছিলেন বিমানের একটি প্রতিনিধিদল। সেসময় বোয়িং এর প্রতিনিধিরা দুটি ৭৮৭-৯ ড্রিমলাইনার কেনার জন্য বিমানকে প্রস্তাব দেয়। চীনা একটি এয়ারলাইনসের অর্ডারে ওই দুটি ড্রিমলাইনার প্রস্তুত করা হলেও পরে তারা তা নেয়নি। দেশে ফিরে বিমানের কর্মকর্তারা বোয়িং এর প্রস্তাব বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রনালয়কে জানান। পরবর্তীতে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীকেও জানানো হয়। পরে প্রধানমন্ত্রী আগ্রহ প্রকাশ করায় উড়োজাহাজ দুটির ক্রয় সংক্রান্ত তথ্য জানতে বোয়িং এর সঙ্গে যোগাযোগ করছেন বিমানের কর্মকর্তারা।

বিমানের এক কর্মকর্তা বলেন, চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বাণিজ্যযুদ্ধ চলার কারণে চীনের হেইনান এয়ারলাইনস বোয়িং এর সঙ্গে ক্রয় চুক্তি বাতিল করেছে। উড়োজাহাজ ‍দুটি নিলে আমাদের সুবিধা হচ্ছে— আমাদের বহরে ড্রিমলাইনার আছে, ফলে এটি পরিচালনায় আলাদা করে পাইলট, প্রকৌশলীদের প্রশিক্ষণের প্রয়োজন হবে না। এছাড়া অর্ডার করলে নতুন করে বানাতেও অনেক সময় লাগে। ২০০৮ সালে আমরা ১০টির অর্ডার করেছিলাম, সেগুলো পেতে আমাদের প্রায় ১১ বছর লেগেছে।

এ বিষয়ে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মহিবুল হক বলেন, বোয়িং আনুষ্ঠানিকভাবে প্রস্তাব দেয়নি। আমরা কিনতে আগ্রহী, তাদের প্রস্তাব পেলে দামের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বর্তমান বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের বহরে দশটি নিজস্ব উড়োজাহাজ রয়েছে। সেগুলো হলো- ৪টি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, ২টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও ৪টি বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com