বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০২:৩৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মাধবপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান গাজীপুরে পোশাক নারী শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার ত্রিশালে রাস্তার দূর্ভোগে লালপুর-কৈতরবাড়ী ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা হলে অপরাধীদের মধ্যে ভীতিও থাকবে: কাদের ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাহাড়পুর একিয়া ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিনব কায়দায় রোগীর সাথে প্রতারণা নবাবগঞ্জে অজ্ঞাত পরিচয় নারীর লাশ উদ্ধার মাধবপুরে করোনার ভাইরাসের সুযোগে বালু খেকোদের রমরমা ব্যবসা নৌকায় ভোট দেয়ার অপরাধে বিএনপি দলগতভাবেই এইসব অপকর্ম করেছিল -তথ্যমন্ত্রী বড়াইগ্রামে জোর পুর্বক ঘরবাড়ি ভাংচুর করে রাস্তা নির্মাণ

৩০৭ ধারা ইস্যুতে রাহুলকে ‘বাবা’ বলে অমিত শাহ’র কটাক্ষ

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

 

সংবিধান থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপ বিতর্কে এবার রাহুল গান্ধীকে কটাক্ষ করলেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তীব্র আক্রমন করে তিনি বলেন,‘রাহুল বাবা’ এখন রাজনীতিতে এসেছেন। কিন্তু, কাশ্মীর ও ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের দাবিতে বিজেপির তিন প্রজন্ম  দিয়েছে। কংগ্রেস কাশ্মীর নিয়ে রাজনীতি করছে বলেও অভিযোগ করেছেন অমিত। খবর আনন্দবাজারের

আজ রোববার মুম্বাইয়ে একটি সেমিনারে যোগ দেন অমিত শাহ। সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপ নিয়ে নরেন্দ্র মোদীর ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন অমিত। তিনি বলেন, ‘‘দ্বিতীয় বার ৩০০-র বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় আসার পর সংসদের প্রথম অধিবেশনেই সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ ও ৩৫এ ধারা বিলোপ করেন প্রধানমন্ত্রী।” এর পরই রাহুলকে আক্রমণ করেন বিজেপি সভাপতি।

তিনি বলেন, ‘‘রাহুল গান্ধী বলেন, সংবিধানের ৩৭০ ধারা বিলোপ একটি রাজনৈতিক বিষয়। রাহুল বাবা, আপনি সম্প্রতি রাজনীতিতে এসেছেন। কিন্তু, বিজেপির তিন প্রজন্ম কাশ্মীর, ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের জন্য বলিদান দিয়েছেন। এটা আমাদের কাছে রাজনৈতিক বিষয় নয়, ভারত মায়ের অখণ্ডতা বজায় রাখাই আমাদের লক্ষ্য।”

অমিত আরও বলেন, ‘‘আমরা ৩৭০ অনুচ্ছেদ ও ৩৫এ তোলার দাবিতে উৎসর্গীকৃত যোদ্ধা। জনসঙ্ঘ ও বিজেপি বহুদিন ধরেই এর বিরুদ্ধে বলে আসছে।”

বিশেষ মর্যাদা তুলে দিয়ে, দুটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভেঙে দেওয়া হয়েছে জম্মু এবং কাশ্মীরকে। এই প্রসঙ্গ টেনে অমিত বলেন, ‘‘কাশ্মীরে খুব শীঘ্রই নির্বাচন হতে চলেছে। কংগ্রেস যারা জম্মু-কাশ্মীরে রাজনীতি খোঁজে আর বিজেপি যারা দেশপ্রেম দেখে তাদের মধ্যেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে।”

কাশ্মীর ইস্যুতে প্রথমে রাহুল, তার পর স্বাভাবিক ভাবেই অমিতের টার্গেট ছিল মেহবুবা মুফতি ও ফারুক আবদুল্লাও। তাদের নাম না করেই অমিত বলেন, ‘‘তিন পরিবারের শাসন কখনই দুর্নীতি দমন ইউনিট তৈরি করতে দেয়নি। এখন থেকে জম্মু-কাশ্মীরে অ্যান্টি করাপশন ব্যুরো কার্যকর হল।”

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com