মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৩:১০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

ফেনীতে স্কুলছাত্রীকে অচেতন করে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

খবরের আলো রিপোটঃ

 

 

মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর : ফেনীতে দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে কোমলপানীয় খাইয়ে অচেতন করে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার রাতে সোনাগাজী উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের বাদামতলী এলাকা থেকে আশফাকুল রহমান বাবলা (৩৫) নামের এক নির্মাণ শ্রমিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার আশফাকুল দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার দাউদপুর ইউনিয়নের হরিরামপুর আদর্শ গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে। দীর্ঘদিন থেকে সোনাগাজী উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের বাদামতলী এলাকায় নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করার পাশাপাশি স্ত্রীসহ ভাড়া বাসায় থাকতেন তিনি।

সোনাগাজী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মো. সাইফুদ্দিন জানান, গত রোববার সন্ধ্যায় ওই ছাত্রী তার নানাবাড়িতে বেড়াতে আসে। রাত ৮টার দিকে বাসার ভাড়াটে আশফাকুল কোমলজাতীয় পানির মধ্যে চেতনানাশক মিশিয়ে এনে ছাত্রী ও তার নানা-নানিকে দেন।

“কোমল পানীয় খাওয়ার কিছুক্ষণ পর ঘরের সবাই অচেতন হয়ে পড়েন।

“পরে গভীর রাতে ঘরে ঢুকে আশফাকুল ওই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করে এবং নানির ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে আপত্তিকর ছবি তোলেন।”

সোমবার সকালে বিষয়টি টের পায় তারা। বিকেলে ছাত্রীর মামা বাদী হয়ে আশফাকুলকে আসামি করে সোনাগাজী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন।

সোমবার সন্ধ্যায় স্থানীয় লোকজন আশফাকুলকে খুঁজে বের করে বেধড়ক পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

আশফাকুল কয়েক মাস ধরে ওই বাড়িতে স্ত্রীসহ ভাড়া নিয়ে থাকছেন। সেই সুবাধে ওই পরিবারের লোকজনের সাথে তার ‘ভালো সম্পর্ক’ গড়েও ওঠে বলেও জানায় পুলিশ।

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মঈন উদ্দিন আহমেদ বলেন, ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ছাত্রীটিকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার আদালতে ২২ ধারায় মেয়েটির এবং ফেনীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিমের আদালতে হাজির করে ১৬৪ ধারায় আশফাকুলের জবানবন্দি গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

অপরদিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আশফাকুল পুলিশের কাছে ধর্ষণ ও ছবি তোলার কথা স্বীকার করেছে বলেও জানায় পুলিশ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com