শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ১০:১৮ অপরাহ্ন

পটুয়াখালীর মহিপুরে ছাত্রলীগের কমিটি গঠন নিয়ে বিভক্ত ছাত্রলীগ

খবরের আলো :

 

হাবিববুর রহমান মাসুদ, পটুয়াখালী প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর মহিপুর থানা ও কুয়াকাটা পৌর কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে বিভক্ত হয়ে পরেছে ছাত্রলীগ। এনিয়ে পদবঞ্চিতদের বিক্ষোভ এবং নব গঠিত কমিটির নানা কর্মসূচী পালনে উপ্তত্ত এখন মৎস্য বন্দর আলীপুর-মহিপুর ও পর্যটন নগরী কুয়াকাটা। এতে সহিংস কোন ঘটনা না ঘটলেও নির্বাচকে সামনে রেখে ছাত্রলীগের এমন বিভক্তিতে উদ্বিগ্ন আওয়ামীলীগের কমী সমর্থকরা।
ছাত্রলীগ সূত্রে জানা যায়, পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাসান শিকদার ও সাধারন সম্পাদক ওমর ফারুক ভুইয়া যথাক্রমে শোয়াইব খানকে সভাপতি ও সাইদুর রহমানকে সাধারন সম্পাদক করে মহিপুর থানা শাখা এবং মজিবুর রহমানকে সভাপতি ও তাইফুর রহমান হাসানকে সাধারন সম্পাদক করে কুয়াকাটা পৌর ছাত্রলীগের কমিটি প্রদান করে। চলতি মাসের ১৯ তারিখে এ কমিটি প্রদান করা হয়েছে।
কমিটি প্রদানের পর থেকেই পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা এ নিয়ে বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। উভয় পক্ষ প্রতিদিন নানা কর্মসূচী পালন করে আসছে। পদবঞ্চিতদের অভিযোগ, যাদের দিয়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে তাদের পরিবারের অনেকেরই বিএনরি রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। তারা জেলা ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দকে ইংগিত করে অভিযোগ করেন, অবৈধ অর্থ গ্রহনের মাধ্যমে এ কমিটি প্রদান করা হয়েছে। যার প্রমান তাদের কাছে রয়েছে। অপরদিকে নতুন কমিটির পক্ষের নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, যারা এ কমিটির বিরোধীতা করছেন কিংবা নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের অনেকেরই নেই ছাত্রত্ব। তারা দাবী করেন, কোন অবৈধ লেনদেন নয় বরং সততা, যোগ্যতা এবং দলীয় নীতি নির্ধারনী থেকেই তাদের পদায়ন হয়েছে।
এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আ.লীগের ত্যাগী অনেক নেতা-কর্মীরা জানান, মহিপুর থানা ও কুয়াকাটা পৌর এলাকার আওয়ামী রাজনীতিকে নিয়ন্ত্রনকারী একটি গ্রæপের পছন্দের লোকদের কমিটিতে স্থান না পাওয়ায় নবগঠিত কমিটিসহ জেলা নেতৃবৃন্দকে বিভিন্নভাবে হেয় প্রতিপন্ন করা হচ্ছে। কমিটির বিরোধিতা করে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করা হচ্ছে। নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্য এই গ্রæপটি জাতির পিতা শেখ মুজিবের আদর্শের সংগঠন ছাত্রলীগের দীর্ঘদিনের ভাবমুর্তি ক্ষুন্নœ করছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই জানান, চারটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে মহিপুর থানা গঠিত। মহিপুর সদর ইউনিয়ন, ডাবলুগঞ্জ, ধুলাসর ইউনয়িন আ.লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ সকল অঙ্গ সংগঠনের এনিয়ে কোন প্রতিক্রিযা না থাকলেও কুয়াকাটা পৌর ও লতাচাপলী ইউনিয়ন আ.লীগসহ অঙ্গ সংগঠনের একটি অংশ এ কমিটির বিরোধিতা করে আসছে। মুলত: ছাত্রলীগের কমিটির মাধ্যমে তাদের একক আধিপত্যে টানপোড়ন ঘটার শংকা থেকেই এমন বিরোধিতা করছে।
(২৪ আগস্ট) রবিবার বেলা ১১টায় মৎসবন্দর আলীপুরের শেখ রাসেল সেতুর নীচে পদবঞ্চিত ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে। বিক্ষোভ মিছিলে নবগঠিত কমিটির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলে শ্লোগান দেয় বিক্ষুদ্ধরা। এ সময় নবগঠিত কমিটির নেতা কর্মীরা আনন্দ মিছিল বের করলে উভয় পক্ষের নেতা কর্মীদের মধ্যে মৃদূ উত্তেজনা বিরাজ করে। তবে মহিপুর থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিবেশ শান্ত হয়। প্রতিবাদ সভায় ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন ও ইলিয়াস খান বলেন, অবৈধ উৎকোচ গ্রহনের মাধ্যমে মহিপুর থানা ও কুয়াকাটা পৌর ছাত্রলীগের কমিটি প্রদান করা হয়েছে। কমিটিতে যাদেরকে সভাপতি-সম্পাদক করা হয়েছে তারা জামাত শিবির ও ছাত্রদলের সক্রিয় কর্মী ছিলেন।
এবিষয়ে জানতে চাইলে পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি হাসান শিকদার মুঠোফোনে বলেন, সারা দেশে ছাত্রলীগের কমিটি গঠনের পর দলে নতুন অনুপ্রবেশকারী একটি চক্র বিরোধ তৈরির মাধ্যমে বিশৃঙ্খলা তৈরির অপচেস্টা করছে। যারা এসব করছে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com