বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০২:১২ পূর্বাহ্ন

বেনজেমা-মার্সেলোর গোলে জয়ে ফিরল রিয়াল

খবরের আলো  ডেস্ক :

 

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দারুণ এক মাইলফলক ছুঁলেন করিম বেনজেমা। মার্সেলোও পেলেন গোলের দেখা। তাতে ভিক্তোরিয়া প্লজেনকে হারিয়ে হতাশার বৃত্ত থেকে বেরিয়ে জয়ের উৎসব করল রিয়াল মাদ্রিদ।

সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে মঙ্গলবার রাতে ‘জি’ গ্রুপে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে ২-১ গোলে জেতে রিয়াল। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে পাঁচ ম্যাচ পর লোপেতেগির দল জয়ে ফিরল।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও লা লিগা মিলিয়ে টানা তিন হারের হতাশা নিয়ে নিজেদের মাঠে নামা রিয়াল ম্যাচের একাদশ মিনিটে এগিয়ে যায়। লুকাস ভাসকেসের ক্রসে হেডে বল জালে জড়িয়ে দেন ফরাসি ফরোয়ার্ড বেনজেমা।

লিওনেল মেসি ও রাউল গনসালেসের পর তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে টানা ১৪ আসরে গোল করার কীর্তি গড়লেন বেনজেমা।

৩৫তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণের ভালো সুযোগ নষ্ট করেন ইস্কো। গোলরক্ষক বিপদমুক্ত করতে গিয়ে তার পায়ে বল তুলে দেন; কিন্তু স্পেনের এই মিডফিল্ডারের চিপ দূরের পোস্ট দিয়ে বেরিয়ে যায়।


দ্বিতীয়ার্ধেও বলের নিয়ন্ত্রণ রেখে রক্ষণে চাপ দিতে থাকে প্রতিযোগিতাটির সর্বোচ্চ ১৩বারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল। ৫৫তম মিনিটে নিজেদের মধ্যে দারুণ বোঝাপড়ায় ব্যবধান দ্বিগুণ করে নেয় তারা।

মার্সেলোর শট এক ডিফেন্ডার ফেরানোর পর বল পেয়ে যান এক মিনিট আগেই ইস্কোর বদলি নামা ফেদেরিকো ভালভেরদে। উরুগুয়ের এই মিডফিল্ডারের পাস গ্যারেথ বেল ব্যাক হিল করার পর নিখুঁত শটে লক্ষ্যভেদ করেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্সেলো।

৭৫তম মিনিটে ওয়েলসের ফরোয়ার্ড বেলকে তুলে নিয়ে মার্কো আসেনসিওকে নামান রিয়াল কোচ।

চার মিনিট পর ম্যাচে ফেরা গোলের দেখা পায় চেক রিপাবলিকের দল ভিক্তোরিয়া। সতীর্থের ছোট করে বাড়ানো বলে পাত্রিক হরোসফস্কির নেওয়া শট ঝাঁপিয়ে পড়েও আটকাতে পারেননি কেইলর নাভাস। তবে বাকিটা সময় ব্যবধান ধরে রেখে নিজেদের মধ্যে প্রথম দেখায় ভিক্তোরিয়াকে হারানোর স্বস্তি নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল।

তিন ম্যাচে দুই জয় ও এক হারে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে রিয়াল। সিএসকে মস্কোকে নিজেদের মাঠে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়া এএস রোমা ৬ পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে শীর্ষে রয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com