সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১২:৪২ পূর্বাহ্ন

ঝিনাইগাতীতে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে তিন জনের মৃত্যুদণ্ড

খবরের আলো :

 

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলায় এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের পর মুখে অ্যাসিড ঢেলে শ্বাসরোধে হত্যার দায়ে তিন যুবকের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আদালত একই সঙ্গে নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় তিনজনকে বেকসুর খালাস দেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে শেরপুর শিশু আদালতের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন। এছাড়াও আদালত সাজাপ্রাপ্ত প্রত্যেককে এক লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো- ঝিনাইগাতী বাকাকুড়া গ্রামের ফজল হকের ছেলে আমানুল্লাহ (২৩), হাবিবুর রহমানের ছেলে নূরে আলম (২৮) ও মৃত মজিবর রহমানের ছেলে কালু মিয়া (৩০)। সাজাপ্রাপ্ত মধ্যে কালু মিয়া পলাতক রয়েছে।

এছাড়া আদালতে নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় এ মামলার অপর তিন আসামি হারুন-অর-রশিদ (৩৬), সুন্দরী বেগম (৩৬) ও আনোয়ার হোসেন আনুকে (১৮) বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট গোলাম কিবরিয়া বুলু বলেন, ঝিনাইগাতী উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের পশ্চিম বাকাকুড়া গ্রামের শফিকুল শেখের মেয়ে বিনা আক্তারের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে স্থানীয় আমানুল্লাহ।

পরিবার তাদের সম্পর্ক মেনে না নেয়ায় ২০১৬ সালের ৯ জুলাই বিনাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আমানুল্লাহর হাতে তুলে দেয় স্থানীয় কালু মিয়া। পরে বিনা বেগমকে ধর্ষণ করে এবং মুখে অ্যাসিড ঢেলে শ্বাসরোধে হত্যার পর বাকাকুড়া খালে মরদেহ ফেলে দেয় আমানুল্লাহ।

ওই বছরের ২১ জুলাই খালে তার মরদেহ পাওয়া যায়। ওইদিনই বিনার মা বাদী হয়ে ঝিনাইগাতী থানায় একটি মামলা করেন। তদন্ত শেষে ওই বছরের ২০ অক্টোবর ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন ঝিনাইগাতী থানা পুলিশের এসআই আব্দুল করিম। বিচারিক প্রক্রিয়ায় বাদী, চিকিৎসকসহ ১৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বৃহস্পতিবার মামলার রায় দেন বিচারক।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com