রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০২:১৯ পূর্বাহ্ন

খালেদা ছাড়া সংলাপ-নির্বাচন ফলপ্রসূ হবে না-ফখরুল

খবরের আলো রিপোর্ট :

 

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, খালেদা জিয়া এই জীবন সায়াহ্নে গণতন্ত্রের জন্য কারাবরণ করছেন। দেশনেত্রীকে কারাগারে রেখে কোনো সংলাপ এবং নির্বাচন কোনোটাই ফলপ্রসু হবে না।

বুধবার দুর্নীতির দুই মামলায় খালেদা জিয়ার সাজা বাতিল ও তার মুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিএনপি আয়োজিত ঘণ্টব্যাপী মানববন্ধনে তিনি একথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখতে এবং নির্বাচনের বাইরে রাখতে সুপরিকল্পিতভাবে মিথ্যা মামলায় তাকে সাজা দেয়া হয়েছে। সরকার একদিকে সংলাপের প্রস্তাব পাঠিয়েছে, অন্যদিকে খালেদা জিয়ার সাজা বৃদ্ধি করা হয়েছে। এই দুটো সাংঘর্ষিক। এটা গণতান্ত্রিক আচারণের প্রতিফলন ঘটায় না। এ থেকে প্রমাণিত হয়; তারা সংলাপের বিষয়ে আন্তরিক নয়।

সরকারের উদ্দেশে ফখরুল বলেন, গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টি করুন। নির্বাচন দিচ্ছেন, নির্বাচনের জন্য আপনারা হেলিকাপ্টারে করে জনগণের কাছে যাচ্ছেন আর আমাদের নেত্রী কারাগারে, আমারা পালিয়ে বেড়াচ্ছি। এই অবস্থায় কখনোই সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না।

তিনি বলেন, এজন্যই আমাদের সাত দফা দাবির পুরোটাই মেনে নিতে হবে। সবার আগে শর্ত হচ্ছে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে। তা না হলে নির্বাচন অর্থবহ হবে না।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেন, সংলাপ-আন্দোলন-নির্বাচন একসঙ্গে চলবে। যতদিন পর্যন্ত দাবি আদায় না হবে, ততদিন পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।

তিনি বলেন, এত দিন যাবৎ যে কৌশল নিয়ে আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করেছি, সেটি ফলপ্রসূ হয়েছে। সরকার সংলাপ করতে সম্মত হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতাসীন দলের মন্ত্রীরা সংলাপে নাকচ করলেও এখন তারা দেশের মানুষের মনের কথা উপলব্ধি করায় তাদের ধন্যবাদ জানাই।

মানববন্ধনে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, আবদুল আউয়াল মিন্টু, রুহুল আলম চৌধুরী, জ্যেষ্ঠ নেতা আবদুস সালাম, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ফজলুল হক মিলন, আসাদুজ্জামান রিপনসহ অসংখ্য নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com