বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৪৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
এবার সড়কে প্রাণ গেল বীর মুক্তিযোদ্ধার বড়জালেঙ্গা এলাকার রোগীদের সাহায‍্যার্থে এগিয়ে আসলেন মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ‍্য বিবার্তা২৪ডটনেট ও জাগরণ টিভি আয়োজিত গোলটেবিল বৈঠক সকালে সাতক্ষীরায় ‘মুজিববর্ষ বিজয় দিবস টেনিস টুর্নামেন্ট-২০২১’র সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ ভারতের পেট্রাপোলে স্পট করোনা পরীক্ষায় দুর্ভোগে বাংলাদেশী যাত্রীরা বঙ্গোপসাগরে জেলে অপহরণের ঘটনায় মুক্তিপণের অর্থ সংগ্রহের মূলহোতা গ্রেফতার সেই মেয়র গ্রেফতার হলেন আবাসিক হোটেল থেকে বাসে আগুন ঘটনায় পুলিশের মামলা সাংবাদিক আজিজুর রহমানের কবিতা “ আঘাত “  শ্রীমন্ত শংকরদেব কলাক্ষেত্রে নিয়োগপত্র বিতরণ করলেন মুখ‍্যমন্ত্রী হিমন্ত

সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুরে বৃদ্ধ কর্তৃক ৪ বছরের শিশু ধর্ষনের চেষ্টা

খবরের আলো :

 

মিঠুন বসাক , সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে ৬০ বছরের বৃদ্ধ হোমিও ডাক্তার দ্বারা এক সারে তিন বছরের শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। জানাজানি হলে বিষয়টি শহরজুড়ে আলোচনার কেন্দ্রে চলে আসে ও এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

ঘটনার বিবরণে জানা গছে, গত ২৩/১০/২০১৮ইং মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় উপজেলার নরিনা ইউনিয়নের নরিনা মধ্যপাড়া গ্রামের মোন্নাফ খাঁর ৪ বছর ছয় মাস বয়সী শিশু কন্যা মরিয়ম খাতুন মাছ বিক্রেতা পিতার কাছে বাজারে যায়। এসময় সকল দোকানপাঠ বন্ধ থাকার সুবাদে হোমিও ডাক্তার ইয়াকুবের নরিনা বাজারস্থ্য চেম্বারের সামনে দিয়ে মরিয়ম যাওয়ার সময় লম্পট তাকে ডেকে চেম্বারের ভেতরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। মেয়েটি কান্নাকাটি করলে লম্পট ইয়াকুব শিশু মরিয়মকে ছেড়ে দেয় এবং বলে এই কথা কাউকে বললে তাকে মেরে ফেলা হবে।

পরে মেয়েটি বাসায় দৌড়ে গিয়ে কান্না করার সময় তার মা জিজ্ঞেস করলে মেয়েটি সবকিছু খুলে বলে। এসময় তার কাপড়েও রক্ত দেখা যায়।

পরে মরিয়মের মা বিষয়টি মেয়ের বাবা ও গ্রাম প্রধানদের জানালে ডাক্তার ইয়াকুব দোকান বন্ধ করে আত্বগোপন করে। এ বিষয়ে ধর্ষিতা শিশুর বাবা আব্দুল মুন্নাফ বুধবার এই প্রতিবেদককে বলেন, দুপুরে বাজারের দোকনপাঠ বন্ধ থাকায় কৌশলে আমার শিশু মেয়ে মরিয়মকে চেম্বারে ডেকে নিয়ে গিয়ে পারকোলা গ্রামের মৃত সাদেক রকারের ছেলে ডাক্তার ইয়াকুব ধর্ষন করে। বিষয়টি বাজার কমিটি ও প্রধানবর্গকে জানানোর পর থেকেই লম্পট ডাক্তার চেম্বার বন্ধ করে আত্মগোপন করেছে বলে তিনি জানান।

এ ঘটনার দৃষ্টান্তমুলক শাস্তিুর দাবিতে ফুসে উঠেছে এলাকাবাসী। এলাকাবাসী বলেন, এই লম্পট ডাক্তার ইয়াকুব অতিতেও এধরনের একাধিক ঘটনা ঘটিয়েছে। আমরা এই ডাক্তারের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি চাই।

এ ব্যাপারে ডাক্তার ইয়াকুবের সাথে কথা বলতে তার বাড়িতে কাউকে পাওয়া যায়নি, ঘরবাড়ি তালাবন্ধ অবস্থায় আছে । এলাকাবাসী জানান ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত ডাক্তার ইয়াকুব পরিবার সহ পলাতক রয়েছে।

শাহজাদপুর থানায় যোগাযোগ করা হলে জানা যায়, এই ব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে এবং অভিযুক্ত ডাক্তার ইয়াকুবকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com