মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ১০:৪২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

পটুয়াখালী প্রাইভেট হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় এক গৃহবধূর মৃত্যুর ঘটনায় ভাংচুর ও বিক্ষোভ

খবরের আলো:

 

 

হাবিবুর রহমান মাসুদ, স্টাফ রিপোটারঃপটুয়াখালীতে বুধবার রাতে বেসরকারী শরীফ হোসেন-সোনাবানু স্পেশালাইজড হাসপাতালে অপারেশন থিয়েটারে ভুল চিকিৎসায় আইরিন আক্তার (২২) নামে এক সন্তানের জননীর মৃত্যুর ঘটনায় নিহতের স্বজনরা ও এলাকাবাসী ওই হাসপাতালে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে দায়ী ডাক্তারের বিচারদাবীতে বিক্ষোভ করে। পুলিশের একাধিক টিম ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
নিহত গৃহবধূর পিতা চৌরাস্তা এলাকার মোঃ নুরুল আমিনের অভিযোগ, বুধবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে এ্যাপেডিসাইটস অপারেশন করাতে পটুয়াখালীর প্রাইভেট স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান শরীফ হোসেন-সোনাবানু স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি করে। এসময় অপারেশন থিয়েটারে দায়িত্বরত পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) চীফ মেডিকেল অফিসার এটিএম নাসির উদ্দীন ও বরগুনা হাসপাতালের জুনিয়র কনসালটেন্ট তারেক হাসান কোন প্রকার পরীক্ষা-নিরিক্ষা ছাড়াই রোগীর শরীরে ঔষধ প্রয়োগ করলে গৃহবধূ আইরিন অসুস্থ্য হয়ে পরে। পরে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসাপাতালের ডাক্তার হোসাইন, এফএম আতিকুর রহমান এবং ফেরদৌসি আক্তারসহ একাধিক ডাক্তারদের ডেকে আনা হয়। আইরিনের অবস্থা খারাপ দেখে একের পর এক ঔষধ প্রয়োগ করা হয়। কিন্তু রাত পৌনে ১১ টার দিকে আইরিন আক্তার অপারেশন থিয়েটারে মারা যায়।
আইরিনের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পরলে রোগীর স্বজন ও এলাকাবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে হাসপাতালে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। ভাংচুরের সময় গোটা হাসপাতালে আতংক ছড়িয়ে পরলে হাসপাতালে চিকিৎসারত একাধিক রোগীরা দিকব্দিক ছোটা-ছুটি করে যে যার মত আশ্রয় নেয়। এ খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশের কয়েকটি দল ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। বিক্ষুব্ধ স্বজন ও জনতা পুলিশের উপস্থিতিতে ওই প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষের বিচারের দাবীতে বিক্ষোভ করে।

এ প্রসঙ্গে অভিযুক্ত ডাক্তার এটিএম নাসির উদ্দীন ও তারেক হাসান বলেন-চিকিৎসা সেবায় কোন প্রকার অবহেলা ও অনিয়ম হয়নি। রোগী খিচুনি রোগে আক্রান্ত ছিল। আমরা অনেক চেষ্টা করেছি। তদন্তে আমাদের অবহেলা ও অনিয়ম বেড়িয়ে আসলে তার দায়ভার নেবো।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত সদর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, রোগীর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পরলে পুলিশ আসার পূর্বে বিক্ষুব্ধ স্বজন ও জনতা একটু ঝামেলা করেছে। কিন্তু এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com