বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০৭:৫৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
নাটোরে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩৭৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার  স্পেনের জাতীয় জাদুঘরে অভিবাসীদের আনন্দ উৎসব পরকীয়া করতে এসে ধরা খেল  প্রেমিক!  থানায় মামলা, প্রেমিক শ্রীঘরে! রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে নারীদের গুরুত্ব নিয়ে ফেসবুকে আবেগময় পোস্ট করেন মামূনি খান (মনি)   ত্রিমোহনী সেতু প্রবেশ মুখে  গর্তের সৃষ্টি হয়েছে,  ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে নতুন সড়কের উদ্ভোদন করলেন নুরুল ইসলাম রাজা শরীয়তপুরে ২ হাজার ৭৩২ পিচ ইয়াবা সহ আটক মাদক ব্যবসায়ী ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের তালিকাভুক্ত কুখ্যাত ডাকাত ফারুক গ্রেপ্তার বড়াইগ্রামে ট্রাক-পিকআপ মুখোমুখি সংঘর্ষে পিকআপ চালক নিহত উদাসীনতায় হিলিতে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ

নামাজের জন্য মসজিদ আবশ্যক নয়, ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের রায়

MUSLIMS OFFERING NAMAJ ON THE OCASSION OF EID AT JAMA MASJID IN THE CAPITAL

খবরের আলো :

 

নামাজের জন্য মসজিদ আবশ্যক নয়’ আগে এমন রায়ই বহাল রাখলো ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। নামাজ মামলা বৃহত্তর বেঞ্চে পাঠানোর আবেদন খারিজ করে দিয়েছে ভারতের এই শীর্ষ আদালত। প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ জানিয়ে দিয়েছে, যে কোনও ধর্মেই উপাসনাস্থল গুরুত্বপূর্ণ হলেও সরকারি কাজের জন্য অধিগ্রহণের প্রয়োজন হলে তা করা যাবে। ১৯৯৪ সালের রায় পুনর্বিবেচনা এবং বৃহত্তর বেঞ্চে পাঠানোর দাবিতে মামলা দায়ের হয় ভারতের সুপ্রিম কোর্টে। শুনানি হয় প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রর নেতৃত্বে তিন বিচারপতির বেঞ্চে। এ দিন সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে রায়ে জানানো হয়, ১৯৯৪ সালের ওই রায় বৃহত্তর বেঞ্চে পাঠানোর প্রয়োজন নেই।

তবে প্রধান বিচারপতি এবং বিচারপতি অশোক ভূষণের সঙ্গে ভিন্ন মত পোষণ করেন বিচারপতি আব্দুল নাজির। তার বক্তব্য, মসজিদ ইসলামের অপরিহার্য অঙ্গ কি না, সেটা ধর্মবিশ্বাসের ভিত্তিতেই ঠিক করা উচিত। সেই কারণেই এই মামলা বৃহত্তর বেঞ্চে পাঠানোর প্রয়োজন রয়েছে।

১৯৯৪ সালের রায়ে বলা হয়েছিল, নামাজের জন্য মসজিদ অপরিহার্য নয়। যে কোনও জায়গাতেই নামাজ পাঠ করা যেতে পারে। সরকারি কাজে প্রয়োজনে উপাসনাস্থলের জমি অধিগ্রহণে কোনও বাধা নেই।

অযোধ্যার মূল মামলার শুনানি শুরু হচ্ছে আগামী ২৯ অক্টোবর থেকে। নামাজ মামলার রায়ে ভারতের প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ এদিন জানিয়ে দিয়েছে, ওই মামলার উপর কোনও প্রভাব ফেলবে না এ দিনের রায়। কিন্তু পুনর্বিবেচনার জন্য বৃহত্তর বেঞ্চে পাঠালে শুনানি ও রায়দান আরও পিছিয়ে যেতে পারে। ফলে ২৯ নভেম্বরই অযোধ্যা মামলার শুনানি শুরু হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 Dailykhaboreralo.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com